শনিবার ২৫ মে, ২০১৯ ইং , ১১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯ রমজান, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

রোজায় থাকুক সুস্থ ত্বক

মে ১৪, ২০১৯ | ১:২০ অপরাহ্ণ

তিথি চক্রবর্তী

রোজায় খ্যাদ্যাভাস পরিবর্তন হয়, একইসাথে কাজের সময়সূচিও কিছুটা পাল্টে যায়। ফলে স্বাভাবিকভাবে শরীরের ওপর তা প্রভাব ফেলে। আর এই সময় গরমও যেহেতু বেশি, তাই ত্বক সহজেই মলিন হয়ে যায়। তবে একটু সচেতন থাকলে এই গরমেও আপনার ত্বক, চুল থাকবে সুস্থ।

এবার প্রচন্ড গরমে রমজান মাস শুরু হয়েছে। দিনের একটি বড় সময় পানি খাওয়া হয় না বলে ত্বকের আর্দ্রতা অনেকটা কমে যায়।

ত্বক সুস্থ রাখতে এসময়ের করণীয় সম্পর্কে পরামর্শ দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ডার্মাটোলজি বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক সাইফুল ভূঁইয়া।

বিজ্ঞাপন

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকলে বা শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে গেলে ত্বকে ফুসকুড়ি, পাচড়া, চুলকানিসহ নানা ধরনের সংক্রমণ হওয়ার ঝুঁকি থাকে। তাছাড়া সচেতনতার অভাবে এই গরমেও হতে পারে ত্বকের নানা সমস্যা। কারো কারো ওষুধও ঠিকমতো কাজ করে না। এজন্য কিছু বিষয়ে অবশ্যই সতর্ক হওয়া দরকার-

পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে

এই গরমে ত্বকের সুস্থতার বেশিরভাগই নির্ভর করে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার ওপর। অনেকে ঘামে ভেজা জামা সারাদিন পড়ে থাকেন। এর ফলে ত্বকে ফুসকুড়ি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

তাই জামাকাপড় ঘামে ভিজে গেলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পাল্টে ফেলতে হবে। যারা মেসে বা হোষ্টেলে একসাথে অনেকের সাথে থাকেন, তাদের পরিচ্ছন্ন থাকা খুবই জরুরী। তা না হলে একজন থেকে অন্যজনের ত্বকে রোগ সংক্রমণ হতে পারে।

দিনে দুইবার গোসল করা ভালো

এসময় বাইরে ধুলাবালিও থাকে যথেষ্ট। তাই দিনে দুইবার গোসল করা উচিত। ব্যবহার করা পোশাক প্রতিদিন ধুয়ে ফেলতে হবে। গোসলের সময় সাবান-শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে।

শিশুদেরও পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে

এই গরমে শিশুদেরও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা জরুরী। শিশুকে অপরিচ্ছন্ন রাখলে ত্বকে নানা ধরনের রোগ সম্ভাবনা থাকে। শিশুর জামাকাপড়ও পরিষ্কার রাখতে হবে।

মেহেদী ব্যবহারে সচেতনতা দরকার 

বাজারের কেনা মেহেদী ব্যবহারে অনেকসময় ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। কারো কারো ত্বকে চুলকানি হয়। এমনকি এসব মেহেদী ব্যবহারে ত্বকে ‘এসিড বার্ণ’ এর মতো ক্ষতিও হতে পারে।

ত্বকে যেকোন ধরনের সংক্রমণ হলে নিজে নিজে ওষুধ কিনে ব্যবহার করা উচিত না। ডাক্তারের পরামর্শে ওষুধ কিনতে হবে।

ত্বকের যত্ন নিতে হবে নিয়মিত

ত্বকের যত্ন নিতে হবে নিয়মিত

প্রতিদিনকার ব্যস্ত জীবনে ঝক্কি-ঝামেলা অনেক। আবার সারাদিন রোজা রেখে শরীরে ক্লান্তিও নেমে আসে। তবুও দিনশেষে নিজের জন্য কিছুটা সময় তো দরকার। এই সময়ে ত্বক, চুল ও ঠোঁটের যত্ন নিয়ে কিছু টিপস দিয়েছেন গীতিস বিউটি পার্লারের রূপ বিশেষজ্ঞ  শাবাবা বিল্লাহ

ত্বকের যত্ন

গরমে ত্বক সুস্থ রাখতে হলে পানির কোন বিকল্প নেই। ইফতারের পর থেকে অল্প করে বার বার পানি খেতে হবে। তাহলে পানিশূন্যতার ভয় থাকবে না। ডাবের পানিও এই সময় কার্যকরী। বাইরে থেকে ফিরে ত্বক ভালোভাবে পরিষ্কার করতে হবে। এরপর ত্বকে লাগাতে পারেন অ্যালোভেরা। এতে ত্বকে রোদে পোড়া ভাব থাকবে না। রাতে ঘুমানোর আগে আপনার ত্বকের উপযোগি ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

কেমন ফেসিয়াল করবেন?

ত্বকের ধরনভেদে ফেসিয়াল করানো ভালো। এসময় অ্যালোভেরা ফেসিয়াল করলে ত্বকে রোদে পোড়া ভাব দূর হবে। যাদের ত্বক তৈলাক্ত, তারা ভেষজ ফেসিয়াল করতে পারেন। এতে তৈলাক্ত ভাব কমে যাবে। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের মৌসুমি ফল দিয়ে ফ্রুটস ফেসিয়াল করা যেতে পারে। অরেঞ্জ ফেসিয়াল ত্বককে মসৃণ করবে এই সময়।

ঠোঁটের যত্ন

প্রচন্ড গরমেও যেহেতু অনেকক্ষণ পানি না খেয়েই থাকতে হয়, ফলে ঠোঁট আর্দ্রতা হারিয়ে শুষ্ক হয়ে যায়। এই সময় ঠোঁটের যত্নে ব্যবহার করতে পারেন অ্যালোভেরা। রাতে ঘুমানোর আগে মধু ও চিনি দিয়ে ঠোঁটে স্ক্রাব করুন। এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ঠোঁটে ভেসলিন লাগান। এতে ঠোঁটের মরা চামড়া উঠে যাবে। আর ঠোঁটের কালো ভাব দূর হবে।

চুল পরিষ্কার রাখুন

যেহেতু অনেক গরম, এসময় ঘামে ভিজে চুলের গোড়া নরম হয়ে যায়। এজন্য সপ্তাহে অন্তত দুইদিন চুলে তেল লাগিয়ে ২ ঘন্টা রেখে শ্যাম্পু করতে হবে। চুলে অবশ্যই কন্ডিশনার ব্যবহার করবেন। আর স্টিম ছাড়া যেকোন হেয়ার ট্রিটমেন্ট এসময়ের চুলের যত্নে অত্যন্ত কার্যকরী।

সামনে ঈদ। ঈদের আগে ত্বক ও চুলের যত্ন নিন ও নিজেকে স্বাস্থ্যজ্জ্বল রাখুন।

 

ছবি – সারাবাংলা

সারাবাংলা/টিসি/পিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন