বিজ্ঞাপন

ওজন কমাতে ‘ডিটক্স ওয়াটার’

January 13, 2020 | 10:00 am

লাইফস্টাইল ডেস্ক।।

শরীরের ক্ষতিকর উপাদান বা টক্সিনের কারণে ওজন বেড়ে যেতে পারে। ওজন বেড়ে গেলে অনেকেই দীর্ঘসময় না খেয়ে থাকেন, যা মোটেও ঠিক না। এতে নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা হতে পারে। ওজন বাড়লেও নিয়ম মেনে পরিমাণমতো খেতে হবে।

বিজ্ঞাপন

তবে পরিমাণমতো খেলেই ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে, তা নয়। ওজন কমাতে হলে শরীরের ক্ষতিকর উপাদান বা টক্সিন দূর করতে হবে। শরীরে থাকা ক্ষতিকর উপাদানগুলোর কারণেও অনেকসময় ওজন বাড়ে।

শরীরের ক্ষতিকর উপাদানগুলো দূর করতে একটি পানীয় খুবই কার্যকর। আসুন জেনে নেই ‘ডিটক্স ওয়াটার’ রেসিপি সম্পর্কে-

বিজ্ঞাপন

উপাদান

পানি ১ লিটার
আদা কুচি ২ চা চামচ
শসা (কুচি) ১ টি
দারচিনি ২ ইঞ্চি
লেবু (রস) ১ টি
মধু ২ চা চামচ

পদ্ধতি

পানিতে সবগুলো উপকরণ দিয়ে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। সকালে এই পানি ছেঁকে নিন। ছেঁকে নেওয়া পুরো পানি পান করতে হবে। সপ্তাহে অন্তত ৩ থেকে ৪ দিন ডিটক্স ওয়াটার খেলে শরীরের ক্ষতিকর উপাদানগুলো দূর হবে। রোগ-বালাই কমে যাবে। ডিটক্স ওয়াটার অন্তত ছয়মাস খেতে হবে। ধীরে ধীরে ওজন নিয়ন্ত্রণে আসবে।

ওজন কমাতে আরও কিছু বিষয় মনে রাখা ভালো-

 √ খাবারে শর্করার পরিমাণ কমাতে হবে। এইসময় বাজারে পাওয়া যায় নানারকম শীতকালীন সবজি। ভাতের বদলে সবজি, ডাল ও মুরগী দিয়ে স্যুপ বানিয়ে খেতে পারেন। খাওয়ার পর পর্যাপ্ত পরিমাণ সালাদ খেতে হবে। এতে ক্ষুধাও মিটবে, ওজনও বাড়বে না।

√ প্রতিদিন অন্তত ২ রকমের মৌসুমী ফল খেতে হবে। সকালে নাস্তার পর ও বিকেলে ফল খেতে হবে।

√ কেনা পাউরুটি বাদ দিয়ে হাতে বানানো রুটি সকালের নাস্তায় খেতে হবে। অনেকে মনে করেন, ডিম খেলে ওজন বাড়ে। এই ধারণা ভুল। ডায়েট করলে প্রতিদিন একটি করে সেদ্ধ ডিম খেতে হবে। তাহলে ওজন বাড়বে না।

√ ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত ২ ঘন্টা আগে রাতের খাবার খেতে হবে। ঘুমানোর আগে এক গ্লাস দুধ (ফ্যাটছাড়া) খাওয়া ভালো।

√ ওজন কমাতে গরু ও খাসীর মাংস না খাওয়াই ভালো।

ওজন কমাতে নিজেরমতো ডায়েট চার্ট বানিয়ে ফেলা যাবে না। চিকিৎসকের পরামর্শে ডায়েট করতে হবে। কারণ সুস্থ থাকাই সবচেয়ে জরুরী।

সারাবাংলা/টিসি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন