বিজ্ঞাপন

জেলে বসে ডাকাতির পরিকল্পনা: ২ জন ফের রিমান্ডে

July 8, 2020 | 5:03 am

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: রাজধানীর শেরেবাংলা থানা এলাকায় পান্থপথের ওয়ালটন প্লাজার (এসটি) শোরুমে ডাকাতির করার অভিযোগের মামলায় গ্রেফতার সুমন ও রানা নামে দুই আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ফের দুই দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) রিমান্ড শেষে আসামিদের আদালতে হাজির করে ফের সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শেরেবাংলা নগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুমন চন্দ্র শীল। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ধীমান চন্দ্র মন্ডল তাদের ফের দুই দিনের রিমান্ডের আদেশ দেন। এদিন আসামিদের পক্ষে কোনো আইনজীবী ছিলেন না।

এর আগে, গত ৫ জুলাই এ দুই আসামির একদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। ওই দিন সাথী নামের এক আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়। এর আগে রবিউল ইসলাম নামের আরেক আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। বর্তমানে তিনি কারাগারে আছেন।

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, বিভিন্ন সময় চুরি-ডাকাতির মামলায় গ্রেফতার হয়ে এ আসামিদের জেলে গিয়ে পরিচয় হয়। সেখানে বসেই বড় কোনো শোরুমে ডাকাতির পরিকল্পনা করেন। এরপর জেল থেকে বেরিয়ে রাজধানীর পান্থপথের ওয়ালটন শোরুমে ডাকাতি করেন তারা।

গত ২৩ জুন মধ্যরাতে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানার পান্থপথের ওয়ালটন প্লাজা শোরুমে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ওয়ালটন শোরুম টিম ম্যানেজার মো. রানা মিয়া পরদিন শেরেবাংলা নগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় তদন্তের ভিত্তিতে ঢাকার বিভিন্ন স্থানের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ ও তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ডাকাতিতে অংশ নেওয়া চার জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এদের মধ্যে রবিউল ইসলাম নামে এক ডাকাত আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। বর্তমান তিনি কারাগারে আটক রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এআই/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন