বিজ্ঞাপন

পলাশীর বাসা থেকে আনসার কর্মকর্তার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

December 26, 2020 | 1:48 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: রাজধানীর আজিমপুরে পলাশী স্টাফ কোয়ার্টার থেকে আনসার বাহিনীর সহকারী পরিচালক রুমানা ইয়াছমিনের (৩০) মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ফ্যান থেকে গলায় ওড়না পেচিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

রুমানা ৩৭তম বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে কর্মরত ছিলেন আনসার ক্যাডারের কর্মকর্তা হিসেবে গাজীপুরের শফিপুরে। এ ঘটনাটি আত্মহত্যা হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করছেন তার স্বজনরা।

শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে লালবাগ পলাশী সরকারী স্টাফ কোয়ার্টারের বাসায় ফ্যান থেকে ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় রুমানার মরদেহ পাওয়া যায়। উদ্ধার করে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

রুমানার গ্রামের বাড়ি বগুড়া জেলার কাহালু উপজেলার লোহাজল গ্রামে। বাবার নাম নুরনবী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খাদ্য ও পুষ্টি বিজ্ঞান বিভাগের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। স্বজনরা বলছেন, ব্যক্তিগত কিছু হতাশা ও পরিবারের সঙ্গে বিয়ে নিয়ে মতবিরোধের জের ধরে আত্মহত্যা করে থাকতে পারেন তিনি।

লালবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি, তদন্ত) মো. হেলাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মৃত রুমানা গাজীপুরের শফিপুরে আনসারের সহকারী পরিচালক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। কয়েকদিন আগে প্রশিক্ষণের জন্য ঢাকায় আসেন।

বিজ্ঞাপন

ওসি আরও জানান, রাতে স্বজনরা রুমানার মোবাইলে কল করে সাড়া না পেলে তার এক সহকর্মীকে বিষয়টি জানান। ওই সহকর্মী বাসায় এসে ভেতর থেকে দরজা বন্ধ পান। পরে অন্যদের সহায়তায় দরজা ভেঙে রুমানাকে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পান।

রুমানার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজের মর্গে রাখা হয়েছে। শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেলাল উদ্দিন জানান, ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে এটি আত্মহত্যা কি না।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা /এসএসআর/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন