বিজ্ঞাপন

ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’, তথ্য সংগ্রহে কন্ট্রোল রুম চালু

May 23, 2021 | 9:59 pm

সারাবাংলা ডেস্ক

পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। যা ধীরে ধীরে শক্তি সঞ্চয় করে আগামী মঙ্গলবার (২৫ মে) অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’এ পরিণত হবে। পরেদিন বুধবার (২৬ মে) ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, উড়িষ্যা ও বাংলাদেশের খুলনা জেলার উপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে এ ঘূর্ণিঝড়। এমতাবস্তায় ‘ইয়াস’র পর্যবেক্ষণ ও তথ্য সংগ্রহে কন্ট্রোল রুম চালু করেছে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়।

বিজ্ঞাপন

কন্ট্রোল রুমের মোবাইল নম্বর হলো— ০১৩১৮২৩৪৫৬০। রোববার (২৩ মে) মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এস এম সরওয়ার কামাল স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বাসাস’র প্রতিবেদনে বলা হয়, আসন্ন ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ মোকাবেলার নির্দেশনা দিয়ে রোববার মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে অনলাইন এক জরুরি সভা করেছে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়। পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক এতে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে জাহিদ ফারুক বলেন, বন্যা, ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলা আমাদের জন্য নতুন নয়। ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বাঁধ মনিটরিংসহ জরুরি কাজের জন্য পর্যাপ্ত জিও ব্যাগ প্রস্তুত রয়েছে। একইসঙ্গে প্রকৌশলীদের কাছে আক্রান্তদের জন্য মাস্ক, স্যালাইনের ব্যবস্থা রাখা হবে।

এছাড়াও বর্তমান পরিস্থিতিতে মাঠপর্যায়ে সকলের উপস্থিতি নিশ্চিত করার নির্দেশনা দিয়ে পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম। তিনি বলেন, জরুরি ভিত্তিতে লোকবল নিশ্চিত করাসহ সার্বক্ষণিক যোগাযোগ নিশ্চিত করতে হবে। দুর্যোগ শেষ না হওয়া পর্যন্ত কেউ স্টেশন ত্যাগ করতে পারবে না। কোথাও বাঁধ ক্ষতিগ্রস্থ হলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন

সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ারের সভাপতিত্বে সভায় অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) আলম আরা বেগম, অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) রোকন উদ-দৌলা, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক এ কে এম ওয়াহেদ উদ্দিন চৌধুরীসহ অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতরের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। লঘুচাপটি ঘনীভূত হয়ে নিম্নচাপ এবং পরবর্তীতে গভীর নিম্নচাপ ও ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে ভারতের আলিপুর আবহাওয়া অধিদফতরের কর্মকর্তার বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, ‘ইয়াস’ রোববার দুপুরে পশ্চিমবঙ্গের উপকূলীয় এলাকা দিঘা থেকে ৬৭০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। যা আগামী মঙ্গলবার অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। এ সময় ৬০ থেকে ৭০ কিলোমিটার বেগে হাওয়া বইতে পারে। এমনকি হাওয়ার গতিবেগ বেড়ে ৮০ কিলোমিটার পর্যন্তও হতে পারে। বুধবার (২৬ মে) ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, উড়িষ্যায় আঘাত হানতে পারে।

বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতর আরও জানিয়েছে, উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে উড়িষ্যা-পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে পৌঁছাতে পারে এই ঘূর্ণিঝড়। ইতিমধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান দেশের সকল উপকূলে সর্তকাবস্থা জারি করার কথা জানিয়েছেন। শনিবার সমুদ্রবন্দরসমূহকে ১ নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া গভীর সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে রোববার (২৩ মে) সকালের মধ্যে উপকূলে ফিরে আসতে বলা হয়েছে। বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গ সমুদ্রে মাছ ধরা ট্রলার ও নৌকার জন্য একই সতর্কতা জারি করেছে।

এদিকে শনিবার চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ১ নম্বর দূরবর্তী সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের দেওয়া এক পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ব্রক্ষ্মপুত্র, গঙ্গা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল রয়েছে, যা আগামী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

যমুনা ও পদ্মা নদীর পানি সমতল এবং আপার মেঘনা অববাহিকার সুরমা ছাড়া অন্যান্য প্রধান নদ ও নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে। আগামী ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত তা অব্যাহত থাকতে পারে।

এছাড়া প্রধান সব নদ-নদীর পানি সমতল বিপদসীমার নীচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অন্যদিকে, পর্যবেক্ষণাধীন ১০১টি পানি সমতল স্টেশনের মধ্যে বৃদ্ধি পেয়েছে ৪৩টির, হ্রাস পেয়েছে ৩২টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ৪টির, গেজ পাঠ পাওয়া যায়নি ২২ টির এবং তথ্য পাওয়া যায়নি ২২ টির।

ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের দুর্যোগ মোকাবিলা বিভাগের কর্মকর্তাদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এছাড়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি তার সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগ ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে একাধিক পূর্বপ্রস্তুতিমূলক বৈঠক করেছেন।

এ পরিস্থিতিতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে কয়েকটি দূরপাল্লার স্পেশাল ট্রেন বাতিল করেছে পশ্চিমবঙ্গ। স্থানীয় পত্রিকার খবরে জানা গেছে, ৯টি দূরপাল্লার ট্রেনকে আগামী ২৫ থেকে ৩০ তারিখের মধ্যে বাতিল করা হয়েছে।

সারাবাংলা/এনএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন