বিজ্ঞাপন

ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্তের নির্দেশ

September 8, 2021 | 4:17 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্ত করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেইসঙ্গে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের জায়গায় বঙ্গবন্ধুর তর্জনী উঁচু ভাস্কর্যের (বঙ্গবন্ধু লিবার্টি টাওয়ার) কাজ দ্রুত সম্পন্নের জন্য সরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) বিচারপতি নাজমুল আহসান ও বিচারপতি শাহেদ নূর উদ্দিনের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী বশির আহমেদ।

এর আগে, গত বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে কেন স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত করা হবে না এবং বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণস্থলে কেন বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপন করা হবে না- এই মর্মে রুল জারি করা হয়।

বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন

২০১৭ সালে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বঙ্গবন্ধুর ভাষণের স্থান চিহ্নিত করে সেখানে বঙ্গবন্ধুর আঙ্গুল উঁচানো ভাস্কর্য নির্মাণের নির্দেশনা চেয়ে এক রিট আবেদন করেছিলেন আইনজীবী সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী বশির আহমেদ।

এ রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সেই বছরের ২০ নভেম্বর বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহ’র হাইকোর্ট বেঞ্চ রুল জারি করেছিলেন। তবে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সেই রুলের জবাব না দেওয়ার কারণে নতুন করে আবার রিট দায়ের করা হয়।

পরে গত বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি সেই রিটের শুনানি শেষে আদালত ১১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ বিষয়ে সরকারকে বিস্তারিত পরিকল্পনা জানানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন। এর পর শুনানির ধারাবাহিকতায় আজ ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভুক্তের নির্দেশ দিয়ে মামলাটি চূড়ান্তভাবে নিষ্পত্তি করে দিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

এই মামলার নির্দেশনাক্রমে ইতোমধ্যে ঐতিহাসিক ৭ মার্চকে ‘ঐতিহাসিক জাতীয় দিবস ঘোষণা’ করে গেজেট প্রকাশিত হয়েছে।

এছাড়া দেশের ৪৬০টি জেলা/উপজেলা সদরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপনের নির্দেশ বাস্তবায়ন করে সরকার আদালতে প্রতিবেদন দিয়েছে। এসব স্থান রক্ষণাবেক্ষণের জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। এ আদেশও প্রতিপালন করেছে সরকার।

সারাবাংলা/কেআইএফ/পিটিএম

Tags: , , , , ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
ভারতের ১৮তম লোকসভার প্রথম অধিবেশ আজ, শপথ নিয়েছেন সদস্যরারাষ্ট্রায়ত্ত ৫৬ প্রতিষ্ঠানের কাছে পাওনা ৫১ হাজার ৩৯১ কোটি টাকা‘ছাগলকাণ্ডে’ আলোচিত মতিউরকে সোনালী ব্যাংক থেকেও অব্যাহতিএমপি আজীম হত্যা: আওয়ামী লীগ নেতা বাবুর রিমান্ড নামঞ্জুরদুই দেশের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক স্লোগান, নিষিদ্ধ আলবেনিয়ার ফুটবলারবৈশ্বিক অর্থনীতিতে বিভিন্ন সংকট অনুভূত হচ্ছে: অর্থমন্ত্রীভারত সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন মঙ্গলবারবেনজীরের স্ত্রী-মেয়ের বিরুদ্ধে পরবর্তী কার্যক্রম চলবে: দুদক সচিবদেশে নিবন্ধিত সিমের সংখ্যা ৩৩ কোটি, সক্রিয় ১৯ কোটিবেহিসেবি খাওয়ার পর দেহের টক্সিন দূর করতে সব খবর...
বিজ্ঞাপন