বিজ্ঞাপন

ইভ্যালির রাসেল-শামীমার মুক্তি চেয়ে আদালত প্রাঙ্গণে মানববন্ধন

September 21, 2021 | 12:03 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও তার স্ত্রী এবং প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনের মুক্তি চেয়ে মানববন্ধন করেছেন ত্রেতা-সেলাররা।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত প্রাঙ্গণে ইভ্যালির ক্রেতা-সেলাররা এ মানববন্ধন করেন।

অর্থ আত্মসাতের মামলায় ৩ দিনের রিমান্ড শেষে ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমা নাসরিনকে (প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান) আদালতে উপস্থিত করা হবে।

বিজ্ঞাপন

মানববন্ধনে উপস্থিত ইভ্যালির গ্রাহক রানা বলেন, আমি প্রায় ৫ লাখ টাকার পণ্য অর্ডার দিয়েছিলাম। দেড় লাখ টাকার পণ্য পাওয়া বাকি রয়েছে। রাসেলকে মুক্তি দিলে সব কিছুর সমাধান হয়ে যাবে। প্রয়োজনে রাসেলকে আমরা আরও সময় দিব, তবুও তার মুক্তি চাই।

আরেক গ্রাহক নিলয় বলেন, আমরা সময় দিচ্ছি, আপনারা সময় কেন দিচ্ছেন না। রাসেলকে সময় দিলে সব ঠিক হয়ে যাবে আশা করি। রাসেলকে মুক্তি দিন, ই-কমার্সকে বাঁচতে দিন।

বিজ্ঞাপন

গত ১৭ সেপ্টেম্বর বিকেলে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুল ইসলামের আদালতে আসামিদের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ইভ্যালি এমডি রাসেলের বাসায় অভিযান চালায় র‍্যাব। অভিযান শেষে বিকেল এই দম্পতিকে গ্রেফতার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

অভিযোগ থেকে জানা গেছে, গত ২৯ মে থেকে জুন মাস পর্যন্ত মোটরসাইকেলসহ বেশ কয়েকটি পণ্য অর্ডার করেন আরিফ বাকের । এগুলো ৭ থেকে ৪৫ কার্যদিবসের মধ্যে দেওয়ার কথা থাকলেও তিনি তা পাননি। এমনকি কাস্টমার কেয়ারে ফোন দিয়েও এর সমাধান পাননি। অফিসে গিয়ে তাদের প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বললে তারা সঠিক কোনো জবাব দিতে পারেনি। এমনকি প্রতিষ্ঠানের প্রধান কর্তাব্যক্তির সঙ্গেও কেউ দেখা করতে দেয়নি। বারবার এ চেষ্টা করা হলেও ইভ্যালির পক্ষ থেকে খারাপ ব্যবহার করা হয় তার সঙ্গে। এই ঘটনার পরে আরিফ বাকের নামে এক গ্রাহক বাদী হয়ে গুলশান থানায় মামলাটি করেন।

সারাবাংলা/এআই/এসএসএ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন