বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামকে হারিয়ে ফাইনালে কুমিল্লা

February 16, 2022 | 8:40 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় কোলিফায়ারে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। চট্টগ্রামের দেওয়া ১৪৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৪৩ বল এবং ৭ উইকেট হাতে রেখে জয় তুলে নেয় কুমিল্লা। এদিন বিপিএলের ইতিহাসের দ্রুততম অর্ধশতক তুলে নেন সুনীল নারিন। ১৬ বলে ৫৭ রান করে নারিন ফিরলেও দলের জয়ের ভিত গড়ে দিয়ে যান।

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রামের ছুঁড়ে দেওয়া ১৪৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন লিটন দাস।  তবে এরপরেই চট্টগ্রামের বোলারদের ওপর টর্নেডো চালান সুনীল নারিন। গোটা বিপিএলে চুপচাপ থাকলেও কোয়ালিফায়ারে হেসেছে তার ব্যাট। হেসেছে কি? তার ব্যাট রীতিমত তুলোধুনা করেছে চ্যালেঞ্জার্সদের বোলারদের।

বিপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম অর্ধশতক হাঁকিয়ে দলের জয়ের ভিত গড়েছেন এই ক্যারিবিয়ান। মাত্র ১৩ বলে পূরণ করেন অর্ধশতক। স্ট্রাইক পান ইনিংসের তৃতীয় বলে। প্রথম বলটি তার গায়ে লেগে অতিরিক্ত চার রান দেয়। এরপর শরিফুলের করা প্রথম ওভারে দুটি চার আর একটি ছক্কা থেকে নারিন নেন ১৪ রান। মিরাজের করা পরের ওভারের দ্বিতীয় বল থেকে স্ট্রাইক পাওয়া নারিন তিনটি ছক্কা আর একটি চার হাঁকান। এতেই  ৯ বলে ৩৬ রান তুলে ফেলেন নারিন। আর বিপিএলের ইতিহাসে প্রথম দুই ওভারে আসে সর্বোচ্চ রান ৪৩।

বিজ্ঞাপন

তৃতীয় ওভারে স্ট্রাইক পাননি নারিন। আর এই ওভারেই কুমিল্লার অধিনায়ক ইমরুল কায়েসের ক্যাচ ফেলে দেন আফিফ। নারিন স্ট্রাইক পাননি চতুর্থ ওভারেও। অবশেষে পঞ্চম ওভারে এসে পান স্ট্রাইক। আফিফের করা ওই ওভারের প্রথম বলে চার, দ্বিতীয় বলে ছক্কা হাঁকানোর পর তৃতীয় বলে এক রান নিয়ে ননস্ট্রাইকে যখন নারিন গেলেন তখন ১২ বলে তার রান ৪৭। ষষ্ঠ ওভারে স্ট্রাইকে এসে মৃত্যুঞ্জয়ের করা প্রথম বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ১৩ বলে পূর্ণ করেন অর্ধশতক। এরপর একটি চার মেরে ওই ওভারে চতুর্থ বলে আউট হয়ে ফেরেন তিনি। তবে তার আগে ৪টি চার আর ৬টি ছক্কায় ৩৫৬ স্ট্রাইকরেটে ১৬ বলে ৫৭ রান করেন নারিন।

নারিন যখন ফিরছেন তখন কুমিল্লার স্কোরবোর্ডে ৫.৪ ওভারে ৭৯ রান। এরপর ফাফ ডু প্লেসিসকে সঙ্গে নিয়ে বেশিদূর এগোতে পারেননি ইমরুল কায়েস। ২৪ বলে ২২ রান করে ইমরুল ফিরলে উইকেটে আসেন মঈন আলী। ইমরুল যখন ফিরছেন তখনও জয়ের জন্য কুমিল্লার দরকার ৫৪ রান। উইকেটে তখন ফাফ ডু প্লেসিস এবং মঈন আলী। বাকি কাজটা এই দুই ব্যাটার করলেন অনায়াসে।

বিজ্ঞাপন

মঈন আলী ১৩ বলে ৩০ রান আর ডু প্লেসিস ২৩ বলে ৩০ রান করে দলকে জয় এনে দিয়েই মাঠ ছাড়েন। ১২.৫ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রান তুলে ফেলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। আর তাতেই নিশ্চিত হয় ফাইনালের টিকিট। চট্টগ্রামের হয়ে একটি করে উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী এবং বেনি হাওয়েল।

এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আকবর আলী এবং মেহেদি হাসান মিরাজের ইনিংসে ভর করে ১৪৮ রানে অলআউট হয় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

বিজ্ঞাপন

আগামী শুক্রবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে বিপিএলের ফাইনালে মাঠে নামবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

সংক্ষিপ্ত স্কোরকার্ড

বিজ্ঞাপন

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স: ১৯.১ ওভার; ১৪৮/১০; (জ্যাকস ১৬, জাকির ২০, ওয়াল্টন ২, আফিফ ১০, শামিম ০, মিরাজ ৪৪, আকবর ৩৩, হাওয়েল ৩, মৃত্যুঞ্জয় ১৫, শরিফুল ০*, নাসুম ০); (রনি ২-০-২১-১, মোস্তাফিজ ৩.১-০-১৩-১, নারিন ৪-০-২৪-০, শহিদুল ৩-০-৩৩-৩, তানভির ৪-০-৩৩-১, মঈন ৩-১-২০-৩)।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স: ১২.৫ ওভার; ১৪৯/৩; (লিটন ০, নারিন ৫৭, ইমরুল ২২, ডু প্লেসিস ৩০, মঈন ৩০); (শরিফুল ১.৫-০-৩১-১, মিরাজ ১-০-২৩-০, আফিফ ২-০-১৬-০, নাসুম ৪-০-৩০-০, মৃত্যুঞ্জয় ২-০-৩২-১, হাওয়েল ২-০-১১-১)।

ফলাফল: কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৪৩ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটে জয়ী।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ২০২২ বিপিএল। এবারের বিপিএলের সবকটি ম্যাচ সরাসরি সম্প্রচার করবে দেশের জনপ্রিয় স্যাটেলাইট চ্যানেল জিটিভি। এছাড়াও বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন প্ল্যাটফর্ম র‍্যাবিটহোলের ওয়েবসাইটে দেখা যাবে বিপিএলের খেলা। অনলাইনে র‍্যাবিটহোলে খেলা দেখতে ব্রাউজ করুন https://www.rabbitholebd.com/

বিস্তারিত আসছে...

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন