বিজ্ঞাপন

চোরাই মোবাইল ফোন বিক্রেতাদেরও গ্রেফতার করা হবে: ডিবি প্রধান

May 18, 2022 | 4:31 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: শুধু মোবাইল চোর নয়, চোরাই মোবাইল ফোন বিক্রেতাদেরও গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা গোয়েন্দা পুলিশের প্রধান ও মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।

বিজ্ঞাপন

বুধবার (১৮ মে ) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত ১৫৮টি চোরাই ফোন উদ্ধার সংক্রান্তে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি।

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার হাফিজ আক্তার বলেন, সম্প্রতি মোবাইল ফোন চুরি করে বা টান মেরে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা প্রায়ই শোনা যায়। পুলিশের কাছে যেসব ঘটনা আসে, সেগুলো উদ্ধার করা হয়। আসামিদের গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠানো হয়। কিন্তু কিছুদিন পর তারা জামিনে বেরিয়ে ফের একই কাজে লিপ্ত হয়। কারণ চোরাই মোবাইল বিক্রি করতে পেরে তারা এ কাজে উৎসাহ পায়। তাই যারা চোরাই মোবাইল বিক্রি করবে, তাদেরও প্রচলিত আইনে গ্রেফতার করা হবে।

বিজ্ঞাপন

চোরাই মোবাইল ফোন বিক্রেতাদেরও গ্রেফতার করা হবে: ডিবি প্রধান

চোরাই মোবাইল বিক্রির প্রক্রিয়া উল্লেখ করে ডিবি প্রধান বলেন, চুরি হওয়া মোবাইলগুলো তিন বার হাত বদল হয়। প্রথমত যে চুরি করে, সে মোবাইলভেদে চার থেকে আট হাজার টাকায় টেকনিশিয়ান বা কোনো চোরাই ফোন ক্রেতার কাছে বিক্রি করে দেয়। টেকনিশিয়ান বা চোরাই ফোন ক্রেতা ফোনের পার্সওয়ার্ড বা ফাইন্ড ইওর ফোন অপশনটি চালু থাকলে তার ডিসপ্লে ও কেসিং উচ্চ মূল্যে বিক্রি করে। আর এসব অপশন চালু না থাকলে আইএমইআই পরিবর্তন করে আইফোনের ক্ষেত্রে ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা ও অন্য ফোনগুলো ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয়।

বিজ্ঞাপন

অল্প পয়সায় দামি ফোন বেচাকেনার কথা উল্লেখ করে গোয়েন্দা পুলিশের এই কর্মকর্তা মোবাইল ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বলেন, পুরাতন মোবাইল বিক্রির ক্ষেত্রে কোনো আপত্তি নেই। কিন্তু ব্যবসায়ীদের কাছে চোরাই মোবাইল থাকলে তাকে গ্রেফতার করা হবে। যারা চোরাই মোবাইল বিক্রি করে, তারাও অপরাধী। বিক্রেতাদের এসব কাজ থেকে সরে আসার অনুরোধ করেন তিনি।

মোবাইল ফোন চুরি প্রতিরোধে জনসাধারণকে রাস্তাঘাটে চলাচলের ক্ষেত্রে সতর্ক থেকে চলাচল করতে অনুরোধ করেন তিনি। এছাড়া রিকশা বা পাবলিক পরিবহনে চলাচলের সময় কথা বলার প্রয়োজন হলে গাড়ির ভেতরের দিকে মোবাইল রেখে কথা বলার পরামর্শ দেন ডিবির এ কর্মকর্তা।

বিজ্ঞাপন

এর আগে, গত ২৯ এপ্রিল উত্তরা ১০ নম্বর সেক্টরে কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে দুপুরে ওজু করার সময় এক ব্যক্তির প্রায় দুই লাখ টাকার একটি আইফোন চুরি হয়। এ ঘটনায় তিনি উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশের পাশাপাশি মামলাটির ছায়া তদন্তে নামে ডিবি। ছায়া তদন্তে রাজধানীর মোতালেব প্লাজা থেকে চুরি হওয়া মোবাইলটিসহ আরও ১৫৭টি চোরাই মোবাইল, একটি ল্যাপটপ ও ১ লাখ ১৮ হাজার টাকা উদ্ধার করে গোয়েন্দা উত্তরা বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার কাজী শফিকুল আলমের নেতৃত্বে একাধিক টিম। এ ঘটনায় চোর ও বিক্রয়কারীসহ আট জনকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

সারাবাংলা/ইউজে/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন