বিজ্ঞাপন

কোম্পানির করপোরেট কর আড়াই শতাংশ কমছে

June 9, 2022 | 5:37 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: প্রস্তাবিত ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেটে দুই শর্ত সাপেক্ষে করপোরেট কর ২ দশমিক ৫ শতাংশ কমানোর প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। প্রস্তাবিত বাজেটে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ও তালিকবর্হিভূত সব কোম্পানির করপোরেট কর কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে ব্যাংক, বিমা, সব আর্থিক প্রতিষ্ঠান, মার্চেন্ট ব্যাংক, সব তামাক কোম্পানি এবং মোবাইল ফোন কোম্পানির করপোরেট করের হার প্রস্তাবিত বাজেটে অপিরিবর্তিত রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার (৯ জুন) বিকেলে জাতীয় সংসদে ২০২২-২৩ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপনকালে তিনি এ প্রস্তাব করেন ।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘ব্যবসা-বাণিজ্যের ব্যাপক প্রসারের লক্ষ্যে গতবছর অর্থ আইনে করপোরেট কর হার ৩২ দশমিক ৫০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৩০ শতাংশ করা হয়েছিল। প্রস্তাবিত ২০২২-২৩ অর্থবছরে করপোরেট কর হার আরও কমানোর প্রস্তাব করছি।’

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, ‘কর কমানোর ক্ষেত্রে সব প্রাপ্তি ও আয় অবশ্যই ব্যাংকে স্থানান্তরের মাধ্যমে গৃহীত হতে হবে এবং ১২ লাখ টাকার অতিরিক্ত ব্যয় ও বিনিয়োগ অবশ্যই ব্যাংকে স্থানান্তরের মাধ্যমে সম্পাদন করতে হবে। এই শর্তে আমি নন-লিস্টেড কোম্পানির কর হার ৩০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২৭ দশমিক ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি।’

তিনি বলেন, ‘অর্থনীতির অধিকতর আনুষ্ঠানিকীকরণ এবং এক ব্যক্তি কোম্পানির প্রতিষ্ঠা উৎসাহিত করার লক্ষ্যে এক ব্যক্তি কোম্পানির কর হার ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২২ দশমিক ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি।’

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রী বলেন, ‘পুঁজিবাজারের উন্নয়ন ও বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার লক্ষ্যে পরিশোধিত মূলধনের ১০ শতাংশের অধিক শেয়ার প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) তালিকাভুক্ত কোম্পানির জন্য কর হার ২২ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২০ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি। তবে এক্ষেত্রে ১০ শতাংশ বা তার কম শেয়ার আইপিওর মাধ্যমে হস্তান্তরকারী লিস্টেড কোম্পানির কর হার ২২ দশমিক ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি।’ এছাড়া আগের শর্ত পরিপালনে ব্যর্থতায় তালিকাভুক্ত কোম্পানির কর হার ২২ দশমিক ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘ব্যক্তি-সংঘের কর হার ৩০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২৭ দশমিক ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি। আর কৃত্রিম ব্যক্তিসত্ত্বা ও অন্যান্য করযোগ্য সত্ত্বার কর হার ৩০ শতাংশ থেকে ২৭ দশমিক ৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি।’

বিজ্ঞাপন

প্রস্তাবিত বাজেটে বলা হয়েছে, কোনো কোম্পানির সরকারের বেধেঁ দেওয়া দুই শর্ত না মানলে কর সুবিধা পাবে না। অন্যদিকে, প্রস্তাবিত বাজেটে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক, বিমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিদ্যামান করপোরেট কর ৩৭ দশমিক ৫ শতাংশ অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। পাশাপাশি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত নয় এমন ব্যাংক, বিমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের করপোরেট কর ৪০ শতাংশ অপরিবর্তিত থাকছে। বিদ্যামান মার্চেন্ট ব্যাংকের করপোরেট কর ৩৭ দশমিক ৫ শতাংশ অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে।

এছাড়াও প্রস্তাবিত বাজেটে সিগারেট, বিড়ি, জর্দা, গুলসহ সব তামাকজাত প্রস্তুতকারী কোম্পানির করপোরেট করের বিদ্যামান হার ৪৫ শতাংশ বহাল থাকছে। অন্যদিকে, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত মোবাইল কোম্পানির করপোরেট কর ৪০ শতাংশ এবং তালিকাবর্হিভূত মোবাইল কোম্পানির কর ৪৫ শতাংশ বহাল রাখা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া সব বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ, বেসরকারি ডেন্টাল কলেজ, বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ এবং তথ্যপ্রযুক্তি খাতে শিক্ষাদানে নিয়োজিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের করপোরেট কর ১৫ শতাংশ বহাল থাকছে।

সারাবাংলা/জিএস/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন