বিজ্ঞাপন

ঝালমুড়ি কিনতে গিয়ে ঝগড়া, ছুরিকাঘাতে আহত মেডিকেল ছাত্রের মৃত্যু

December 5, 2022 | 10:32 am

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট

বগুড়া: ছুরিকাঘাতে আহত বগুড়া মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী মেহেরাজ হোসেন ফাহিম রহমান (২৬) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। ঝালমুড়ি কিনতে গিয়ে বিক্রেতার সঙ্গে কথা কাটাকাটির জেরে এই ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছিল।

বিজ্ঞাপন

গতকাল রোববার (৫ নভেম্বর) সকালে ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বগুড়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. রেজাউল আলম জুয়েল জানান, ‘ফাহিম চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ। তারা থাকতেন ঢাকায়। রোববার সকালে ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফাহিম মারা যান।’

বিজ্ঞাপন

জানা যায়, গত ২৩ নভেম্বর সন্ধ্যার পর ফাহিম তার কয়েক বন্ধুর সঙ্গে বগুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২নং গেটের সামনে ঝালমুড়ি ও ভাজার দোকানে যান। এসময় একটি তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে দোকানি ফরিদ ব্যপারীর সঙ্গে ফাহিমের বাকবিতণ্ডা হয়। এসময় দোকানির ছেলে শাকিল হোসেন হঠাৎ করে ক্ষিপ্ত হয়ে পেয়াঁজ কাটার চাকু দিয়ে ফাহিমের পেটে আঘাত করে। ফাহিমকে উদ্ধার করে দ্রুত মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। বগুড়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত চিকিৎসাধীন ছিলেন।

ঝালমুড়ি কিনতে গিয়ে ঝগড়া, ছুরিকাঘাতে আহত মেডিকেল ছাত্রের মৃত্যু

বিজ্ঞাপন

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার রাতেই অভিযুক্ত ফরিদ ব্যাপারী ও তার ছেলে শাকিলকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় ফাহিমের বাবা নুর মোহাম্মাদ গাজী বাদী হয়ে মামলা করেছেন।

এদিকে, ফাহিম হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা রোববার বিকালে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সামনে সড়ক অবরোধ করেন। তারা শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবিসহ ফাহিম হত্যার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এমও

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন