বিজ্ঞাপন

থানার উপর ক্ষুব্ধ শাকিব, ডিবিতে আস্থা

March 19, 2023 | 8:54 pm

আহমেদ জামান শিমুল

‘অপারেশন অগ্নিপথ’-র প্রযোজক রহমত উল্ল্যাহ ঢালিউড সুপারস্টার শাকিবের খানের বিরুদ্ধে ধর্ষণসহ পাঁচটি অভিযোগ করেছেন। সে প্রযোজকের বিরুদ্ধে মানহানী ও প্রতারণার অভিযোগে মামলা করতে শনিবার (১৮ মার্চ) রাতে তিনি গিয়েছিলেন গুলশান থানায়। সেখানে তার মামলা নেওয়া হয় নি। তাই রোববার দুপুরে তিনি যান পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) প্রধান কার্যালয়ে।

বিজ্ঞাপন

ডিবি প্রধানের সঙ্গে প্রায় ৪ ঘণ্টার বৈঠক শেষে শাকিব গুলশান থানার কর্মকর্তাদের উপর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। একই সঙ্গে তিনি ডিবিতে আস্থা রাখছেন বলেও জানান। তবে এ সময়ে তাকে বেশ বিধস্ত দেখাচ্ছি।

শাকিব বলেন, গতকাল (শনিবার) রাতে এ প্রযোজক নামধারী রহমত উল্ল্যাহর বিরুদ্ধে মামলা করতে গুলশান থানায় গিয়েছিলাম। ওসি সাহেবকে আমি, আমার আইনজীবী ও আপনাদের সাংবাদিকদের মধ্য অনেকে বার বার বোঝানোর চেষ্টা করা সত্ত্বেও তিনি মামলাটি নিলেন। তিনি বললেন, আপনি যেখানে খুশি অভিযোগ করতে পারেন, আমি আপনার মামলা নিলাম না। আমি একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবে গিয়ে মামলা করতে পারবো না, এটা আমার কাছে বিস্ময়কর মনে হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

আপনি তো আজকে আদালতে মামলা করার কথা তাহলে কেন ডিবিতে আসলেন? ‘আমরা যে কোনো মামলার ক্ষেত্রে দেখেছি ডিবি খুব দ্রুত নিষ্পত্তি করে।যার কারণে আমি ডিবি প্রধানকে ফোন দিয়ে সময় চাই। তিনি দীর্ঘক্ষণ ধরে আমার কথা শুনেছেন। আমার সমস্থ তথ্য প্রমাণগুলো দেখেন এবং ওই প্রতারকের অভিযোগগুলো দেখেন। সবগুলো বিষয় তিনি খতিয়ে দেখেছেন। তিনি আমাকে আশস্থ করেছেন যত দ্রুত সম্ভব এ প্রতারককে আইনের আওতায় আনবেন’,— বলেন শাকিব।

কবে আদালতে মামলা করবেন এমন প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যান শাকিব খান। তবে তিনি জানান, রহমত উল্ল্যাহ যে কোন সময় অস্ট্রেলিয়ায় পালিয়ে যেতে পারে, তাই তড়িঘড়ি করে ডিবি কার্যালয়ে গিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

শাকিব বলেন, ‘প্রযোজক নামধারী প্রতারক রহমত উল্ল্যাহ শুধুমাত্র আমার সঙ্গেই প্রতারণা করেনি, গোটা চলচ্চিত্রের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। লাখো-কোটি মানুষ আমাকে পছন্দ করে, তাদের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। মিথ্যা এবং ভুয়া সংবাদ ছড়িয়েছে সবার কাছে। আমার মনে হয় এ কাজের জন্য রহমত উল্ল্যাহ একা ছিলো না। তার পেছনে আরও অনেক লোক জড়িত ছিলো। তা না হলে রহমত উল্ল্যাহর মতো একজন ভুয়া প্রযোজক নামধারী বাটপার এফডিসির ভেতরে গিয়ে তিন-চারটা প্রধান সংগঠনে ভুল তথ্য দিয়ে বিচার চেয়েছে!’

তিনি আরও বলেন, ‘অপু বিশ্বাসকে দিয়ে আমার সঙ্গে একবার দেখা করেছে সে। ওই সময়ও সে টাকা চেয়েছে। আমার সঙ্গে ছবি তুলে প্রকাশ করে তাৎক্ষণিক বলেছে, আমি নাকি ৩০০ টাকার স্ট্যাম্প এনে সমঝোতা করতে চেয়েছিলাম! এই প্রতারক এমনভাবে দিনের পর দিন মিথ্যাচার করে যাচ্ছে সবার কাছে।’

বিজ্ঞাপন

এদিকে শাকিব খানের সঙ্গে করা বৈঠক নিয়ে ডিবি প্রধান পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার হারুন-অর-রশিদ বলেন, তিনি রহমত উল্ল্যাহ নামে একজন প্রযোজকের বিরুদ্ধে তাকে ব্ল্যাকমেইলিং করার অভিযোগ করেন। আমরা তার বক্তব্য শুনেছি এবং অভিযোগের ব্যাপারে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিবো বলে তাকে জানিয়েছি।

মামলা না করে আপনাদের কাছে কেনো? এমন প্রশ্নে হারুন বলেন, বিভিন্ন মামলা বা অভিযোগের ক্ষেত্রে আমাদের দক্ষতার উপর তার আস্থা রয়েছে বলে জানিয়েছেন। তাই এ বিষয়ে প্রতিকার পেতে তিনি এখানে আসেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এজেডএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন