বিজ্ঞাপন

শান্তিতে নোবেল পুরস্কারের জন্য ‘মনোনীত’ ডোনাল্ড ট্রাম্প

September 9, 2020 | 5:20 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বিশ্ব শান্তিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় শান্তিতে নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন তালিকায় নাম উঠেছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের। সম্প্রতি  ইসরায়েল ও আরব আমিরাতের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্ক গড়তে মধ্যস্থতা করে তিনি এ তালিকায় যুক্ত হলেন। নরওয়ের পার্লামেন্টের সদস্য ক্রিস্টিয়ান তিবরিং জেদে মার্কিন প্রেসিডেন্টের নাম পেশ করেন।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- আরব আমিরাত-ইসরাইল সমঝোতা ও তুরস্কের দ্বৈতনীতি

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) স্কাই নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ক্রিস্টিয়ান তিবরিং জেদে বলেন, আমি মনে করি শান্তিতে নোবেল পাওয়া অন্যান্যদের চেয়ে শান্তি স্থাপনে অনেক বেশি কাজ করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। উল্লেখ্য, ক্রিস্টিয়ান তিবরিং নরওয়ের চারবারের সংসদ সদস্য। তিনি ন্যাটোতে নরওয়ের প্রতিনিধিত্ব করেন।

বিজ্ঞাপন

ডোনাল্ড ট্রাম্পের নাম প্রস্তাবের পক্ষে যুক্তি দেন তিনি— বলেন, দু'টি জাতির মধ্যে দীর্ঘ দিন ধরে চলে আসা অস্বস্তিকর সম্পর্কের ইতি ঘটেছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যস্থতায়। দুই জাতিতে শান্তি স্থাপনে ভূমিকা রাখায় তাকে এই পুরস্কারের জন্য মনোনীত করা হলো।

উল্লেখ্য, গত মাসে ইসরায়েলের সঙ্গে স্বাভাবিক সম্পর্ক স্থাপনে রাজি হয় আরব আমিরাত। এ নিয়ে আরব বিশ্বের তৃতীয় দেশ হিসেবে ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দিল আরব আমিরাত। এর আগে ইসরায়েলের সঙ্গে শুধু মিশর জর্ডান এমন চুক্তি করেছিল। আরব আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনে মধ্যস্থতাকারীর ভূমিকায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- শুধু ট্রাম্পই পারবেন আরেকটি ৯/১১ ঠেকাতে: নূর বিন লাদেন

১৯০১ সাল থেকেই শান্তিতে নোবেল পুরস্কার প্রদান করা হচ্ছে। প্রতিবছরের অক্টোবর মাসে বিশ্ব শান্তিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখা ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। শুধুমাত্র শান্তিতে নোবেল পুরস্কার প্রদান করা হয় নরওয়ে থেকে। নরওয়েজিয়ান পালার্মেন্ট 'নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটি'র মনোনয়ন দিয়ে থাকেন। বাকি বিভাগে পুরস্কার দেওয়া হয় সুইডেন থেকে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আইই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন