বিজ্ঞাপন

৭ম ধাপে ১৩৮ ইউপিতে নির্বাচন সোমবার

February 6, 2022 | 6:23 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দশম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৭ম ধাপে আগামীকাল সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দেশের ২০ জেলার ২৪ উপজেলায় ১৩৮ ইউপিতে ভোট গ্রহণ হবে। এর মধ্যে ৯টিতে ইভিএমে এবং ১২৯টি ইউনিয়নে ব্যালটের মাধ্যমে ভোট নেওয়া হবে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কোনো ধরনের বিরতি ছাড়া নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে ইসির যুগ্ম সচিব আসাদুজ্জামান রোববার (৬ ফেব্রুয়ারি) সারাবাংলাকে বলেন, ‘আগামীকাল ৭ম ধাপে ১৩৮ ইউপিতে নির্বাচন। ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।’

ইসি সূত্র জানায়, এই নির্বাচনে মোট ভোটার রয়েছে ২৪ লাখ ৫১ হাজার ৭৮২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটর ১২ লাখ ৫৭ হাজার ৫৮৬ জন, নারী ভোটার ১১ লাখ ৯৪ হাজার ২২৯ জন এবং ৩ জন হিজড়া ভোটার রয়েছেন। এসব ভোটার ১ হাজার ৩৫০টি কেন্দ্রের ৭ হাজার ৮৫টি কক্ষে ভোট দেবেন। নির্বাচনে সারাদেশে বিভিন্ন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৫ হাজার ৮৭৪ জন প্রার্থী। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৫৭৬, সংরক্ষিত আসনে ১ হাজার ২৩৬ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৪ হাজার ৬২ জন।

বিজ্ঞাপন

ইসি সূত্র জানায়, ৭ম ধাপে ভোট গ্রহণের জন্য সবধরনের প্রস্তুতি শেষ করেছে ইসি। ইতোমধ্যে ভোটার সামগ্রী কেন্দ্রে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। ৭ম ধাপে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন ৭১ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১১ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৩ জন এবং সাধারণ সদস্য পদে ৪৭ প্রার্থী রয়েছেন।

ইসি সূত্র জানায়, চলমান ইউপি নির্বাচনে ইতোমধ্যে ছয় ধাপের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। গত ২১ জুন ও ২০ সেপ্টেম্বর প্রথম ধাপের দুই দফায় ৩৬৯টি এবং ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে ৮৩৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়াও ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে এক হাজার ইউপিতে এবং চতুর্থ ধাপে ২৬ ডিসেম্বর ৮৩৬ ইউপিতে এবং ৫ম ধাপে গত ৫ জানুয়ারি ৭০৮ ইউপিতে, ষষ্ট ধাপে গত ৩১ জানুয়ারি ষষ্ঠ ২১৮ ইউপিতে ভোট নেওয়া হয়েছে। ৭ ফেব্রুয়ারি সপ্তম ও শেষ ধাপে ১৩৮ ইউপিতে ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

বিজ্ঞাপন

উল্লেখ্য, বর্তমানে দেশে ৪ হাজার ৫৭১টি ইউনিয়ন পরিষদ রয়েছে। এর মধ্যে সাড়ে চার হাজার ইউপিতে ভোট করা যাবে। মামলা জটিলতার কারণে নির্বাচন আটকে আছে। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে ইতোমধ্যে নয় বার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে ১৯৭৩ সালে প্রথম ইউপি নির্বাচন এবং সর্বশেষ ২০১৬ সালে নবম ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়াও ১৯৭৭, ১৯৮৩, ১৯৮৮, ১৯৯২, ১৯৯৭, ২০০৩, ২০১১ ইউপি নির্বাচন হয়েছে।চলতি ২০২১ সালে জুন জুলাই মাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দশম ইউপি নির্বাচন। সর্বশেষ ২০১৬ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি প্রথম বারের মতো দলীয় প্রতীকে নবম ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। ২০১৬ সালের ২২ মার্চ থেকে ৪ জুন পর্যন্ত ছয় ধাপে চার হাজার ২৭৫টি ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

সারাবাংলা/জিএস/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন