বিজ্ঞাপন

কলেরার ভ্যাকসিন দেওয়া হবে মে মাসে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

April 22, 2022 | 12:58 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দেশে সাম্প্রতিক সময়ে ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় কলেরার ভ্যাকসিন প্রয়োগের উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে সরকার। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানিয়েছেন, ইদুল ফিতরের পর মে মাস থেকেই এই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

শুক্রবার (২২ এপ্রিল) রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান মন্ত্রী। এদিন এই কলেজে ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে বিডিএস প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

কেন্দ্র পরিদর্শনের পর স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, মে মাসে কলেরার ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। কলেরা ও ডায়রিয়ার প্রভাব যেসব এলাকায় বেশি, সেসব এলাকায় প্রথমে এই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। পর্যায়ক্রমে এই ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রমও সম্প্রসারণ করা হবে।

বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন- ‘ডেন্টাল ভর্তি পরীক্ষায় ডিজিটাল পদ্ধতিতে প্রশ্নপত্র বিতরণ হয়েছে’

করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, সংক্রমণ এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। সবকিছু স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ফিরে আসছে। ফলে যারা এখনো করোনার ভ্যাকসিন নেন, সবাই ভ্যাকসিন নিয়ে নেবেন। আমাদের হাতে ভ্যাকসিনের পর্যাপ্ত মজুত রয়েছে। সবাইকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

প্রতিবছর করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নিতে হলে সে বিষয়ে সরকারের কোনো উদ্যোগ রয়েছে কি না— এমন এক প্রশ্নের জবাবে জাহিদ মালেক বলেন, প্রতিবছর এই ভ্যাকসিন নিতে হলে ভ্যাকসিন উৎপাদনের চেষ্টা করা হবে। এরই মধ্যে বেশকিছু কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। কেবল করোনা ভ্যাকসিন নয়, সব ধরনের ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্যেই বাংলাদেশ প্রস্তুতি নিচ্ছে।

স্বাস্থ্য খাতের অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সে বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, রিপোর্টের কথা আমরা জেনেছি। বিষয়টি পর্যালোচনা করা হচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ বিষয়ে তথ্য তুলে ধরা হবে।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন