রবিবার ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১০ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

‘কেউ দলে যোগ দিলেই তাকে অনুপ্রবেশকারী বলা যাবে না’

নভেম্বর ১৩, ২০১৯ | ৩:০০ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো: কেউ আওয়ামী লীগে যোগ দিলেই তাকে অনুপ্রবেশকারী বলা সমীচীন নয় বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘অনুপ্রবেশকারীদের যে তালিকা হয়েছে সেটি একেবারে প্রাথমিক। তালিকাটি যাচাই-বাছাই হচ্ছে। এরপর সত্যিকার অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করা হবে। দলে কেউ যোগ দিলেই তো তাকে অনুপ্রবেশকারী বলা যাবে না, যোগ তো দিতেই পারে। সেটি যাচাই-বাছাই করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সকালে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি কনভেনশন সেন্টারে আয়কর বিভাগ, চট্টগ্রাম আয়োজিত করদাতাদের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেছেন।

দলে অনুপ্রবেশের বিষয়ে মন্ত্রী হাছান মাহমুদ আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ একটি গণসংগঠন। এখানে অন্য দল থেকে যোগ দিতে পারবে না এমনটি নয়। অন্য দল থেকে যোগ দিতে পারে, তবে তাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের আদর্শ, উদ্দেশ্য ও নীতিতে বিশ্বাস করতে হবে। আমরা কোনো যুদ্ধাপরাধীকে, যুদ্ধাপরাধের সঙ্গে যুক্ত এমন কাউকে নেব না। যারা নানাভাবে অপকর্মের সঙ্গে যুক্ত এবং আমাদের দলের নেতা-কর্মীদের ওপর অত্যাচার নির্যাতন করেছে তাদের আমাদের দলে সম্পৃক্ত করা সমীচীন নয়।’

চলমান দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে বিএনপির দুর্নীতিবাজ নেতাদেরও ধরা হবে বলে জানান তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বিএনপিতেও যারা দুর্নীতিবাজ এবং দুর্নীতির মাধ্যমে নানা কিছু অর্জন করেছেন এবং সরকার ও দেশের জনগণকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছেন, তাদের তথ্য সরকারের কাছে আছে। সেগুলো নিয়ে সরকার নিশ্চয় কাজ করছে।’

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরডি/এমআই

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন