বিজ্ঞাপন

ইন্টারনেট থেকে বিএসএমএমইউর চিকিৎসকের ভিডিও সরানোর নির্দেশ

January 10, 2022 | 6:33 pm

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: কানাডা থেকে পরিচালিত আইপিটিভি নাগরিক টিভি এবং এবিসি নিউজ পোর্টালসহ অন্যান্য অনলাইন মাধ্যম থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) এক সহযোগী অধ্যাপককে (চক্ষু বিশেষজ্ঞ) নিয়ে প্রচারিত মানহানিকর ভিডিও সরানোর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিজ্ঞাপন

সোমবার (১০ জানুয়ারি) এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী সুমাইয়া বিনতে আজিজ। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

বিজ্ঞাপন

পরে আইনজীবী সুমাইয়া বিনতে আজিজ সারাবাংলাকে বলেন, ‘বিএসএমএমইউ’র এক সহযোগী অধ্যাপককে নিয়ে কানাডার নাগরিক টিভি ও এবিসি নিউজ পোর্টালসহ সবধরনের অনলাইন প্লাটফর্ম ও গণমাধ্যম থেকে ওই চিকিৎসককে নিয়ে প্রচারিত ভিডিও এবং সংবাদ সরানোর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেইসঙ্গে মানহানিকর ওই ভিডিও অপসারণ এবং প্রচার বন্ধে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা ও ব্যর্থতা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত। বিটিআরসির চেয়ারম্যান, নাগরিক টিভির চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট চারজনকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।’

আইনজীবী সুমাইয়া আজিজ বিনতে আজিজ আরও জানান, বিএসএমএমইউ সহযোগী অধ্যাপক একজন চক্ষু বিশেষজ্ঞ। তিনি গত ৩৫ বছর ধরে চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছেন। একটি সংঘবদ্ধ চক্রের মাধ্যমে গত কিছুদিন ধরে পারিবারিক এবং প্রাতিষ্ঠানিকভাবে বিভিন্নভাবে তাকে হয়রানি এবং ব্ল্যাকমেইল করে আসছিল। পরে যখন তিনি অনৈতিক কাজে সাড়া দেননি, তখন তার বিরুদ্ধে বেনামি চিঠি ছাড়া হয়। কানাডা থেকে বেআইনিভাবে পরিচালিত নাগরিক টিভি নামে একটি আইপিটিভি ও এবিসি নিউজ পোর্টাল নামে আরেকটি চ্যানেল থেকে অপ্রচার চালাচ্ছে। বিদেশ থেকে এসব ইউটিউব চ্যানেল থেকে দেশের বিভিন্ন সম্মানিত নাগরিকের নামে ভিডিও তৈরি করে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

এসব মানহানিকর ভিডিও অপসারণের জন্য আমরা গত ২৯ ডিসেম্বর বিটিআরসির প্রতি নোটিশ পাঠানো হয়। কিন্তু বিটিআরসি এসব বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। পরে আমরা প্রতিকার চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করি।

সারাবাংলা/কেআইএফ/পিটিএম

বিজ্ঞাপন

Tags: ,

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন