বিজ্ঞাপন

ওয়ার্ক ফ্রম হোম: ভিডিও কনফারেন্সের প্রস্তুতি

April 21, 2020 | 10:29 am

লাইফস্টাইল ডেস্ক

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এখন অনেককেই ঘরে বসে অফিস করতে হচ্ছে। কাজের পাশাপাশি ভিডিও কনফারেন্সে অফিসিয়াল মিটিংয়েও অংশ নিতে হচ্ছে অনেককে। মিটিং ছাড়াও ভিডিও প্ল্যাটফর্মে পড়ানো, চিকিৎসা সেবা দেওয়া, পরামর্শ দেওয়ার মত কাজ করছেন অনেকে।

বিজ্ঞাপন

এসব ক্ষেত্রে প্রশ্ন জাগে ওয়ার্ক ফ্রম হোমে কীভাবে নিজেকে উপস্থাপন করবো। আগের মত ঘুম ভেঙেই গোসল সেরে, পরিপাটি কাপড় পরে, টিপটপ হয়ে যেভাবে অফিসে যেতাম তেমন পরিপাটি হয়েই কী বসতে হবে ক্যামেরার সামনে? নাকি বাসায় যেমন আছি তেমনই থাকবো? এদিকে ঘরে বসে অফিসের পাশাপাশি ঘরের কাজও করা লাগছে। তাহলে সেজেগুজে বসবো কীভাবে? আবার কোথায় কীভাবে বসে ভিডিও কলে অংশ নিতে হবে, বুঝতে পারছি না, তাও।

তাই অফিসের কাজে ভিডিও কলের প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য রইলো কিছু পরামর্শ।

বিজ্ঞাপন

১ সবার আগে বসার জায়গা ঠিক করুন
দিনের বেলা হলে বাসার যে অংশে প্রাকৃতিক আলো আসে সেই জায়গা বেছে নিন ভিডিও কলের জন্য। আর সন্ধ্যার পর হলে ভালো আলো আছে এমন জায়গা বেছে নিন। আলোর দিকে মুখ করে বসবেন যেন আপনার চেহারা পরিষ্কারভাবে দেখা যায়। আপনার পেছনের ব্যাকগ্রাউন্ড যদি বেশি এলোমেলো থাকে গাঢ় রঙের পর্দা ব্যবহার করতে পারেন।

২. পোশাকে নজর দিন
বাসায় বসে থাকলে সেজেগুজে রেডি হতে ইচ্ছা করবে না স্বাভাবিক। কিন্তু যখন কোন অফিসিয়াল মিটিংয়ে বসবেন তখন কিছুটা পরিপাটি হতে হবে। না একদম স্যুট টাই বা শাড়ি গয়না পরে বসতে হবে তা না। তবে বাসায় পরা জামাকাপড় পরে অফিসিয়াল ভিডিও মিটিংয়ে উপস্থিত হবেন না। একটা পরিষ্কার টানটান জামা, শাড়ি, শার্ট বা টি-শার্ট পরুন। পোশাক পরিপাটি হলে আপনার সিরিয়াসনেস ফুটে উঠবে।

৩. মুখের ফোলাভাব দূর করুন
ভিডিও কলে আপনার চোখ মুখ ফোলা থাকলে সেটা নিশ্চয় অনেকের নজর কাড়বে। আপনি নিশ্চয় চাইবেন না সেটা। তাই ভিডিও মিটিংয়ের প্রস্তুতি নেওয়ার আগে চোখ ও মুখের ফোলাভাব কমান। একে বলে ডি পাফ করা। মুখে ব্যবহারের ক্রিম দিয়ে উপরের দিকে মাসাজ করে মুখের ফোলাভাব কমাতে পারেন। চোখ ফুলে থাকলে ঠান্ডা চামচ পদ্ধতি প্রয়োগ করতে পারেন। অর্থাৎ ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করা চামচ বন্ধ চোখের উপর দিয়ে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিলেই ফোলাভাব কমবে।

৪. হালকা মেকআপ
অনেকেই হয়ত নিজেকে আরেকটু পরিপাটি দেখাতে চান। সেক্ষেত্রে হালকা মেকআপ ব্যবহার করতে পারেন। চোখের নীচে কালি দূর করতে হালকা কোন কনসিলার, পাউডার, হালকা রঙের লিপস্টিক আর মাশকারা ব্যবহার করুন। ফাউন্ডেশন, আইশ্যাডো, আইলাইনার, কাজল, লিপগ্লস, হাইলাইটার ইত্যাদি দিয়ে পূর্ণ মেকআপ মানানসই নয়। তবে অনেকেরই হয়ত কাজের প্রয়োজনে মেকআপ ব্যবহার করতে হতে পারে। সেক্ষেত্রে চেষ্টা করুন যতটা স্বাভাবিক চেহারা রাখা যায়। ছেলেরাও নিজ নিজ রুচি অনুযায়ী যতটা সম্ভব পরিপাটি হন। ঠোঁট ফাটার প্রবণতা থাকলে ঠোঁটে আগে থেকেই লিপ বাম বা ভ্যাজলিন লাগিয়ে নিন। মুখ ধুয়ে, শেভ করে, দাঁড়ি থাকলে সেটি আচড়ে পরিপাটি হয়ে নিন।

৫. পরিপাটি চুল
বাসায় আছি তাই যেমন তেমন চুল নিয়েই ক্যামেরার সামনে যাওয়া ঠিক হবে না। এতে আপনাকে দেখতে এলোমেলো লাগবে। চুল বেঁধে, ব্লো ড্রাই করে জেল দিয়ে সাজিয়েই বসুন মিটিংয়ে।

সারাবাংলা/আরএফ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন