বিজ্ঞাপন

সিলগালা রিজেন্ট হাসপাতাল

July 8, 2020 | 2:53 am

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: স্বাস্থ্য অধিদফতরের পক্ষ থেকে সব ধরনের কার্যক্রমে নিষেধাজ্ঞা জারির পাশাপাশি অবশেষে সিলগালা করা হয়েছে রাজধানীর রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা ও মিরপুর শাখা। র‌্যাবের অভিযানে হাসপাতালটির বিরুদ্ধে ওঠা বিভিন্ন অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ার পর এবার তা বন্ধ হয়ে গেল।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৭ জুলাই) রাতে রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা শাখায় গিয়ে দেখা যায়, বিল্ডিংয়ে কেউ নেই। জ্বলছে না কোনো বাতি। ভবনটি সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে। যদিও এদিন দুপুরেও হাসপাতাল ভবনের মূল গেটটি খোলা ছিল। বিকেলে হাসপাতালটির কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের আদেশের পরই তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন- রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বিজ্ঞাপন

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সোমবার (৬ জুলাই) র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্টেট সারোয়ার আলমের অভিযানের পর থেকেই এই ভবনে তেমন লোকজনের আনাগোনা দেখা যায়নি। স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশনায় রিজেন্ট গ্রুপের দুই হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীদের রাজধানীর অন্য দুইটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করতেই যা কিছু কার্যক্রম ছিল।

মঙ্গলবার বিকেলে রিজেন্ট হাসপাতালের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ করতে অধিদফতরের একটি আদেশ জারি করে। ওই আদেশে বলা হয়, রিজেন্ট হাসপাতাল উত্তরা ও মিরপুর গত মার্চ মাস থেকে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে আসছিল। কিন্তু সোমবার (৬ জুলাই) র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে রিজেন্ট হাসপাতালের উত্তরা শাখায় (মূল শাখা) বিভিন্ন অনিয়ম ধরা পড়ে, যা বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে।

আরও পড়ুন- রিজেন্টের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করতে যাচ্ছে স্বাস্থ্য অধিদফতর

অধিদফতর বলছে, প্রকাশিত সংবাদে দেখা যায়, হাসপাতাল দু’টি রোগীদের কাছ থেকে অন্যায়ভাবে বিরাট অঙ্কের টাকা আদায় করছে। অনুমোদন না থাকা সত্ত্বেও আরটি-পিসিআর পরীক্ষার নামে ভুয়া রিপোর্ট দিতে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে, তাগিদ দিলেও লাইসেন্স নবায়ন না করে আরও অনিয়ম করেছে। তাদের হাসপাতাল পরিচালনার লাইসেন্সের মেয়াদও অনেক আগেই শেষ হয়ে গেছে। এছাড়া সারাবাংলার অনুসন্ধানেও রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগের তথ্য-প্রমাণ উঠে এসেছে।

আদেশে বলা হয়, এসব অনিয়মের কারণে ‘দ্য মেডিকেল প্র্যাকটিস অ্যান্ড প্রাইভেট ক্লিনিক অ্যান্ড ল্যাবরেটরিজ রেগুলেশন অর্ডিন্যান্স-১৯৮২’ অনুযায়ী হাসপাতালটির কার্যক্রম অবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হলো।

এর আগে, ৬ জুলাই বেলা ২টা থেকে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলমের নেতৃত্বে একটি দল উত্তরার ১১ নম্বর সেক্টরের ১৭ নম্বর সড়কে অবস্থিত রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযান চালায়। এর আগে র‌্যাবের আরেকটি দল রিজেন্ট হাসপাতালের মিরপুর শাখায় অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানে আট জনকে আটক করা হয় বলে জানান ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম।

আরও পড়ুন-

পরীক্ষা ছাড়াই করোনার রিপোর্ট দিত রিজেন্ট হাসপাতাল

‘প্রতারণা করে ৩ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে রিজেন্ট হাসপাতাল’

প্রতারণার শেষ নেই রিজেন্টের: রক্তের নমুনা নিয়ে ইসিজি পরীক্ষা!

কোভিড চিকিৎসা নিয়ে প্রতারণা: রিজেন্ট হাসপাতালে র‌্যাবের হানা

‘রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যানসহ দোষীদের বিরুদ্ধে মামলা হবে’

মেয়াদোত্তীর্ণ লাইসেন্স নিয়েই রিজেন্ট হাসপাতালে করোনা চিকিৎসা!

‘অপরাধ ঢাকতে নতুন কৌশল নিয়েছিল রিজেন্ট হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ’

সংগৃহীত নমুনা ফেলে রাখা হতো রিজেন্ট হাসপাতালের কর্মকর্তার কক্ষে

সারাবাংলা/এসবি/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন