বুধবার ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৯ কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৫ রবিউল-আউয়াল, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

রুমিন ফারহানার মনোনয়ন বৈধ

মে ২১, ২০১৯ | ৫:১৮ অপরাহ্ণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য বিএনপি মনোনীত প্রার্থী রুমিন ফারহানার মনোনয়ন বৈধ। মনোনয়নপত্রে সংযুক্ত তথ্য-উপাত্ত যাচাই-বাছাই শেষে মঙ্গলবার (২১ মে) দুপুরে রুমিন ফারহানার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আবুল কাসেম।

বিজ্ঞাপন

নির্বাচন কমিশন (ইসি) ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ছিল সোমবার (২০ মে)। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের নির্ধারিত দিন ছিল আজ মঙ্গলবার। বৈধ প্রার্থীদের প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৮ মে। আর ভোট ১৬ জুন। বিএনপির পক্ষ থেকে এ নির্বাচনে আর কোনো প্রার্থী না থাকায় এ পদে ভোট হবে না। রুমিনের মনোনয়নপত্র বৈধ হওয়ায় তিনি প্রার্থিতা প্রত্যাহার না করলে ২৮ মে বিকেলে তাকে নির্বাচিত ঘোষণা করবেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন- সংরক্ষিত আসনে মনোনয়ন পেলেন রুমিন ফারহানা

একাদশ সংসদ নির্বাচনে ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসন থেকে মনোনয়ন চেয়েছিলেন রুমিন ফারহানা। কিন্তু সেখানে মনোনয়ন দেওয়া হয় উকিল আব্দুস সাত্তারকে। অবশেষে সংরক্ষিত নারী আসনে বিএনপির টিকিট তিনিই পেয়েছেন। দলীয় মনোনয়নপত্রে তার নাম প্রস্তাব করেন উকিল আব্দুস সাত্তার, সমর্থন করেন বগুড়া-৪ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মো. মোশারফ হোসেন।

এর আগে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আটটি আসনে জয়ী হয়, এর মধ্যে বিএনপি প্রার্থী ছিলেন ছয় জন। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়া দলটির বাকি পাঁচ বিজয়ী প্রার্থীই শপথ নিয়ে সংসদে গেছেন। এক্ষেত্রে সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে নির্বাচন আইন অনুযায়ী দলটিকে একটি আসন বণ্টন করে দিয়ে নির্বাচনের তফসিল দেয় ইসি।

এদিকে, মনোনয়ন বৈধতা ঘোষণার পর রুমিন ফারহানা শেরে বাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করেন। এরপর সেখান থেকে চলে যান বনানী কবরস্থানে। সেখানে পিতা অলি আহাদ ও খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর কবর জিয়ারত করেন তিনি।

এ সময় রুমিন ফারহানার সঙ্গে ছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসনের প্রেস উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান।

সারাবাংলা/এজেড/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন