বৃহস্পতিবার ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং , ২৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৪ রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরি

বিজ্ঞাপন

জয়া বললেন, তিনি দ্বিগুণ আনন্দিত

আগস্ট ১০, ২০১৯ | ১২:৩৬ অপরাহ্ণ

এন্টারটেইনমেন্ট করেসপন্ডেন্ট

জয়া আহসান অভিনীত ‘এক যে ছিল রাজা’ ছবি ভারতের ৬৬তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত হয়েছে। ছবিটি পরিচালনা করেছেন সৃজিত মুখার্জী। এই নিয়ে জয়া আহসান অভিনীত কোনো ছবি দ্বিতীয়বারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছে। এর আগে কৌশিক গাঙ্গুলী পরিচালিত ‘বিসর্জন’ ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলো।


বিজ্ঞাপন

আরও পড়ুন :  ঈদস্পেশাল লাভবক্স


নিজের অভিনীত কলকাতার ছবি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়ায় উচ্ছ্বসিত জয়া আহসান। পুরস্কারপ্রাপ্তির প্রতিক্রিয়ায় এই অভিনেত্রী বলেন, ‘এক যে ছিল রাজা’ ছবির প্রেক্ষাপট বাংলাদেশের ভাওয়াল অঞ্চল। শুধু অভিনয় নয়, গবেষক দলের অংশ হিসেবে ছবিটিতে ভাওয়ালের স্থানীয় বাংলা উচ্চারণের ভঙ্গিমা নিয়ে আসার কাজটিতে আমি যুক্ত ছিলাম। এর আগে আমার অভিনীত ‘বিসর্জন’ ছবিটিও জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিল। কাকতালীয়ভাবে দুটো ছবির প্রেক্ষাপটই বাংলাদেশ, এটি আমার আনন্দের মাত্রা দ্বিগুণ করেছে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে জাতীয় পুরস্কার প্রসঙ্গে সৃজিত মুখার্জী বলেন, আবারও বাংলা থেকে ছবি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছে। এটা বাংলা সিনেমার জন্য ভালো। এবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া ছবির পরিচালক আমি। এটা ভাবতেই ভালো লাগছে। এই ছবির সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে কৃতজ্ঞতা জানাই। এই পুরস্কার সামনে আরও ভালো কাজ করার জন্য অনুপ্রাণিত করবে।

বাংলাদেশের জয়দেবপুরের ভাওয়াল অঞ্চল নিয়ে ‘এক যে ছিল রাজা’ ছবিটি নির্মিত হয়। এতে ভাওয়াল রাজার চরিত্রে অভিনয় করেন যীশু সেনগুপ্ত। আর তার বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়া আহসান।


আরও পড়ুন :  ভিকি এবং আয়ুষ্মানের হাতে দেশ সেরার পুরস্কার


বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/আরএসও/পিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন