বিজ্ঞাপন

নাস্তায় গুড়-রুটির বদলে বন্দিদের জন্য খিচুড়ি-রুটি-সবজি-হালুয়া

June 16, 2019 | 12:10 pm

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: দেশের কারাগারগুলোতে সকালের নাস্তায় প্রায় দুইশ বছরের পুরনো মেন্যুতে অবশেষে পরিবর্তন এসেছে। এতদিন ধরে সকালের নাস্তায় কয়েদিদের রুটি আর গুড় দিয়ে আসা হলেও এবারে তাদের জন্য থাকছে ভুনা বা সবজি খিচুড়ি কিংবা রুটির সঙ্গে সবজি ও হালুয়া।

বিজ্ঞাপন

রোববার (১৬ জুন) সকালে নাস্তার নতুন এই মেন্যুর উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

কারা সূত্র বলছে, দেশের কারাগারগুলোতে কয়েদিসহ বন্দিদের সকালের নাস্তায় রুটি ও গুড় দেওয়া হতো। ইংরেজ শাসনামল থেকে নাস্তায় এই একই মেন্যু পেয়ে আসছিলেন বন্দিরা। শেষ পর্যন্ত সেই মেন্যুতে পরিবর্তন এলো। এখন থেকে তাদের নাস্তার মেন্যুতে থাকবে খিচুড়ি, রুটি, সবজি, হালুয়া।

বিজ্ঞাপন

নাস্তায় গুড়-রুটির বদলে বন্দিদের জন্য খিচুড়ি-রুটি-সবজি-হালুয়া

ডিআইজি (ঢাকা বিভাগ) টিপু সুলতান জানান, এখন থেকে সপ্তাহে একদিন বন্দিদের দেওয়া হবে ভুনা খিচুড়ি, একদিন সবজি খিচুড়ি। বাকি পাঁচদিন থাকবে রুটি। এর মধ্যে একদিন রুটির সঙ্গে থাকবে হালুয়া, বাকি পাঁচ দিন সবজি।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আজ থেকে সারাদেশের সব কারাগারে এই খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে। খাবারের মান যেমন বেড়েছে, তেমনি পরিমাণও বেড়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী কারাবন্দিদের সুস্বাস্থ্যের কথা মাথায় রেখে নাস্তার মেন্যুতে এই পরিবর্তন আনা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আগে কারাগারে বন্দিরা খেতেই পারত না। এখন তাদের জন্য মান অনুযায়ী পর্যাপ্ত খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে। প্রায় শত বছরের রীতি ভেঙে এই কাজ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মন্ত্রী আরও বলেন, কারাবন্দি যারা আছে, তাদের জন্য ৩৮ ট্রেডের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তারা যেন জেল থেকে মুক্তির পর অপরাধে জড়িয়ে না পড়ে, সেজন্য তাদের দক্ষ করে গড়ে তোলা হয়েছে।

সারাবাংলা/ইউজে/টিআর

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন