বিজ্ঞাপন

মঠবাড়িয়ায় বাল্য বিয়ে পণ্ড, পাত্রের বাবাকে অর্থদণ্ড

December 11, 2019 | 7:19 pm

লোকাল করেসপন্ডেন্ট

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর): পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে ৯ম শ্রেণির এক মাদরাসা ছাত্রী (১৪)।

বিজ্ঞাপন

এসময় পাত্রের বাবাকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার (১১ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলার হলতা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

মঠবাড়িয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সিদ্দিকুর রহমান জানান, হলতা গ্রামের ১৪ বছর বয়সী এক মেয়ের সঙ্গে পাশের উপজেলার এক ছেলের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। পাত্র মনোয়ার হোসেনের (২৬) বাড়ি বামনা উপজেলার ডৌয়াতলা গ্রামে। তার বাবার নাম মোতালেব সরদার।

পাত্রীর মত না থাকলেও দুই পরিবার বিয়ের আয়োজন করে। বিকেলে পাত্র স্বজন নিয়ে পাত্রীর বাড়িতে উপস্থিত হন। রান্নার আয়োজনও শেষ হয়েছিল। স্থানীয়রা বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করেন। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শুরুর আগেই উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মনিকা আক্তার পুলিশ নিয়ে পাত্রীর বাড়িতে হাজির হন।

বিজ্ঞাপন

পরে পাত্র ও পাত্রীর অভিভাবককে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিপন বিশ্বাসের ভ্রাম্যমাণ আদলতে হাজির করা হয়।

এসময় পাত্রীর অভিভাবক মুচলেকা দেন— মেয়ের বয়স ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত তারা বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করবে না। আদালত মোতালেব সরদারকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন।

সারাবাংলা/এটি

বিজ্ঞাপন

Tags:

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন