বিজ্ঞাপন

‘আমি মরে গেলে তুমি দায়ভার নেবে?’

July 29, 2021 | 12:45 pm

স্পোর্টস ডেস্ক

বছরের এই সময়টাতে জাপানের টোকিওর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকে ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস আর সর্বনিম্ন ২৩। যেখানে রাশিয়ার মস্কোতে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৪ আর সর্বনিম্ন ১৪। অর্থাৎ টোকিও সর্বনিম্ন তাপমাত্রাও রাশিয়ার মস্কোর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা সমানই বলা চলে। আর এমন পরিস্থিতিতে টেনিস খেলতে গিয়ে বেশ কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে বিশ্বের দুই নম্বর টেনিস তারকা ড্যানিল মেদভেদেভের।

বিজ্ঞাপন

বুধবার ইতালির ফ্যাবিও ফগনিনির বিপক্ষে খেলার সময় বেশ কয়েকবার অসুস্থ হয়ে পড়েন মেদভেদেভ। তাঁর অবস্থা দেখে এক সময় ম্যাচ রেফারি তাকে জিজ্ঞাসা করে সে ম্যাচটি খেলতে পারবে কিনা। এসময় রেগে গিয়ে মেদভেদেভ উত্তর দেয়, 'আমি ম্যাচ শেষ করতে পারব কিন্তু আমি মারা গেলে তুমি কি এর দায়ভার নেবে?'

এছাড়া আর্জেন্টিনার ডিয়েগো শোয়ার্টজম্যানও একহাত নিয়েছেন অলিম্পিক কর্মকর্তাদের।

বিজ্ঞাপন

টোকিওর গরম সেই সঙ্গে আর্দ্রতায় হাঁসফাঁস করছিলেন মেদভেদেভ এবং শোয়ার্টজম্যান। তবুও বুধবার খেলা চালিয়ে গেছেন এই দুই টেনিস তারকা।

ম্যাচের ভেতর বেশ কয়েকবার অসুস্থও হয়ে পড়েছিলেন মেদভেদেভ। একারণেই চেয়ার রেফারি কার্লোস রামোস এগিয়ে এসে রাশিয়ান তারকাকে জিজ্ঞাসা করেন তিনি খেলা চালিয়ে যেতে পারবেন কিনা। তখন মেদভেদেভ এই উত্তর দেন। তিনি বলেন, 'আমি খেলা চালিয়ে যেতে পারব কিন্তু আমি মরেও যেতে পারি। আর আমি মরে গেলে কি তুমি এর দায়ভার নেবে?'

বিজ্ঞাপন

যদিও শেষ পর্যন্ত ফগনিনিকে ৬-২, ৩-৬ এবং ৬-২ সেটে হারিয়ে পরের রাউন্ড নিশ্চিত করেন মেদভেদেভ।

এদিকে দিনের অপর ম্যাচে টোকিওর অসহ্যকর গরমের কথা জানিয়েছেন আর্জেন্টিনার ডিয়েগো শোয়ার্টজম্যানও।

বিজ্ঞাপন

তিনি ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন, 'আমি জানি না এটা কতটা গরম কিন্তু আমার মনে হয়েছে কমপক্ষে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস হবে। এটা পাগলামি ছাড়া কিছুই নয় যে তারা আমাদের এই গরমের ভেতর খেলতে পাঠাচ্ছে। তিনজন মানুষ এসির ভেতর বসে সিদ্ধান্ত বসে সিদ্ধান্ত নিচ্ছে আমাদের খেলতে হবে। আর খেলা শেষে তারা চোখে চশমা দিয়ে আসবে পুরস্কার দিবে।'

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন