বিজ্ঞাপন

‘করোনা আক্রান্তদের অ্যান্টিবডি দ্রুত কমতে থাকে’

October 27, 2020 | 1:51 pm

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর, আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরে অ্যান্টিবডি দ্রুত কমে যেতে থাকে - লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের একদল গবেষক এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (২৭ অক্টোবর) ওই গবেষণা প্রতিবেদনের বরাতে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

অ্যান্টিবডি - রোগ প্রতিরোধী সুরক্ষার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নিয়ামক যা মানবদেহের কোষগুলোকে ভাইরাস সংক্রমণ থেকে সুরক্ষিত রাখে।

বিজ্ঞাপন

এদিকে ইম্পেরিয়াল কলেজের ওই গবেষণা থেকে দেখা গেছে, চলতি বছরের জুন থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে যারা করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন তাদের অ্যান্টিবডি ২৬ শতাংশ পর্যন্ত কমে যাওয়ার প্রমাণ মিলেছে।

৩৫ হাজার মানুষের ওপর দুই দফায় চালানো এই গবেষণা থেকে আরও দেখা গেছে, প্রথম দফায় এক হাজার জন করোনা আক্রান্তের মধ্যে ৬০ জনের দেহে অ্যান্টিবডি স্বাভাবিক ছিল। দ্বিতীয় দফা পরীক্ষার পর সেই সংখ্যা হাজারে ৪৪ জনে নেমে আসে।

বিজ্ঞাপন

যেহেতু, করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির অ্যান্টিবডি প্রভাবিত হয়, তাই গবেষকরা মনে করছেন একাধিকবার করোনা আক্রান্ত হওয়া কোনো বিরল বিষয় নয়।

এ ব্যাপারে ওই গবেষক দলের পক্ষ থেকে প্রফেসর হেলেন ওয়ার্ড বিবিসিকে জানিয়েছেন, ৬৫ বছরের বেশি বয়সী করোনা আক্রান্তদের ক্ষেত্রে অ্যান্টিবডি কমে যাওয়ার হার প্রায় শতভাগ। কিন্তু, তরুণ আক্রান্তদের মধ্যে এই হার আবার কিছুটা কম।

বিজ্ঞাপন

এছাড়াও, করোনা আক্রান্তদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদাণকারীদের মধ্যে পরীক্ষা করে দেখা গেছে তাদের অ্যান্টিবডি স্বাভাবিক রয়েছে। সেক্ষেত্রে, গবেষকরা বলছেন নিয়মিত ভাইরাস আক্রান্তদের সংস্পর্শে আসার কারণে তাদের অ্যান্টিবডি ঠিক থাকতে পারে।

তবে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার ওপর অ্যান্টিবডি কমে যাওয়ার প্রকৃত প্রভাব কী - সে ব্যাপারে এখনও কোনো স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যায়নি। অচিরেই গবেষণার মাধ্যমে এ সম্পর্কে জানা যাবে বলে গবেষকরা আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/একেএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন