বিজ্ঞাপন

উড়তে থাকা বায়ার্নকে ৫ গোলে বিধ্বস্ত করল মুনশেনগ্ল্যাডবাখ

October 28, 2021 | 4:32 am

স্পোর্টস ডেস্ক

বরুশিয়া মুনশেনগ্ল্যাডবাখের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে নিজেদের শেষ ১০ ম্যাচে প্রতিপক্ষের জালে মোট ৪১টি গোল করেছিল বায়ার্ন মিউনিখ। আর একটি ম্যাচ অতিরিক্ত অর্থাৎ ১১টি ম্যাচ হিসাব করলে এই সংখ্যা গিয়ে ঠেকবে ৫৩টিতে। প্রতিপক্ষে বিধ্বস্ত করতে করতে অভ্যস্ত হয়ে ওঠা বায়ার্ন মিউনিখ এবার নিজেরাই বিধ্বস্ত। ডিএফবি পোকালের দ্বিতীয় রাউন্ডে বরুশিয়া মুনশেনগ্ল্যাডবাখের কাছে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছে বাভারিয়ানরা।

বিজ্ঞাপন

মুনশেনগ্ল্যাডবাখের হয়ে দুটি করে গোল করেন এমবোলো এবং বেনসেবাইনি আর একটি গোল করেন কোনে। শেষবার ২০১৯ সালের ২ নভেম্বর ফ্র্যাঙ্কফ্রুটের কাছে পাঁচ গোল হজম করেছিল বায়ার্ন।

ডিএফবি পোকালের দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে শুরু থেকেই বাভারিয়ানদের চেপে ধরে বরুশিয়া। ম্যাচের দুই মিনিটের মাথায় বায়ার্নের ডি বক্সের সামনে ব্রেল এমবোলোর সঙ্গে বল দেওয়া নেওয়া করে জায়গা করে নিয়ে দারুণ এক শটে বল জালে জড়ান কৌয়াদিও কোনে। এরপরে ম্যাচে ফেরার চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকে বায়ার্ন। তবে ১১ মিনিটে লিড প্রায় দ্বিগুণ করে ফেলেছিল এমবোলো। তার দারুণ এক শট রুখে দেন ন্যয়্যার।

বিজ্ঞাপন

১৫তম মিনিটে এসে জোনাস হফম্যানের অ্যাসিস্ট থেকে বরুশিয়ার ব্যবধান ২-০ করেন র‍্যামি বেনসেবাইনি। এর মিনিট পাঁচেক পরে ডি বক্সের ভেতর এমবোলোকে ফাউল করেন লুকাস হার্নান্দেজ। রেফারির পেনাল্টি বাঁশি বাজানোর পর স্পট কিক থেকে ব্যবধান ৩-০ করেন বেনসেবাইনি।

প্রথমার্ধ ৩-০ গোলে এগিয়ে থেকে শেষ করে বরুশিয়া মুনশেনগ্ল্যাডবাখ।

বিজ্ঞাপন

বিরতির পর ফিরেই ব্যবধান ৪-০ করে বরুশিয়া। দ্বিতীয়ার্ধের মাত্র ছয় মিনিটের মাথায় নিকো এলভেদির অ্যাসিস্ট থেকে হালিপূর্ণ করেন ব্রেল এমবোলো। এরপর ম্যাচের ৫৭তম মিনিটে নিজের দ্বিতীয় এবং বায়ার্নের জালে দলের হয়ে ৫ম গোলটি করেন এমবোলোই।

এরপর ম্যাচে ফেরার চেষ্টা চালিয়ে যেতে থাকে বায়ার্ন। আক্রমণে শক্তিও বাড়ায়। একের পর এক গোলের সুযোগ তৈরি করে কিন্তু কিছুতেই আর কিছু হয়নি। শেষ পর্যন্ত ৫-০ গোলের ব্যবধানের হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়ে বাভারিয়ানদের।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এসএস

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন