সোমবার ১৯ আগস্ট, ২০১৯ ইং , ৪ ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

বিজ্ঞাপন

ট্রায়াল থেকে বাছাই সেরা ৩৫ জন, যোগ হবে আরও ২৫

আগস্ট ৭, ২০১৯ | ৯:৩৫ অপরাহ্ণ

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট

ঢাকা: আগামী বছর জুনিয়র হকি এশিয়া কাপকে সামনে রেখে সাত দিনের উন্মুক্ত ট্রায়াল শেষে ১০৫ থেকে ৩৫ জন হকি খেলোয়াড় চূড়ান্ত করা হয়েছে। ঈদের ছুটির পর ১৮ আগস্ট থেকে শুরু হবে দীর্ঘমেয়াদী আবাসিক ক্যাম্প। সেই ক্যাম্পে সরাসরি জাতীয় দলের ২৫ হকি খেলোয়াড়।

আজ বুধবার ছিল ট্রায়ালের শেষ দিন। সাতব্যাপী ট্রায়েলে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। দ্বিতীয় বিভাগ হকি লিগের বাছাইকৃত ৫১ জনহ বিভিন্ন সার্ভিসেসের ১০৫ জন উদীয়মান খেলোয়াড় থেকে চূড়ান্ত করা হয়েছে ৩৫ জন। বিভিন্ন ধাপে প্রতিভাবানদের বাছাই করা হয়েছে।

ঈদের পর ১৮ আগস্ট থেকে তাদের নিয়ে আবাসিক ক্যাম্প শুরু করবে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন (বাহফে)। ক্যাম্পে সরাসরি যোগ দিবেন আরও ২৫জন। সবমিলিয়ে ৬০ জন খেলোয়াড়কে নিয়ে শুরু হবে ক্যাম্প। সেই ক্যাম্প থেকে চূড়ান্ত বাছাই করা হবে ৪০। চূড়ান্ত দলকে নিয়ে চলবে দীর্ঘমেয়াদী ক্যাম্প। তারাই জুনিয়র হকি কাপে নেতৃত্ব দিবে বাংলাদেশ দলকে।

পুরো ট্রায়াল ও ভবিষ্যত পরিকল্পনা নিয়ে জানালেন দায়িত্বে থাকা কোচ মামুনুর রশিদ, ‘ট্রায়ালে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। মানের প্লেয়ার পেয়েছি। এদের নিয়ে ঈদের পর ক্যাম্প শুরু করবো। সেখান থেকে চূড়ান্ত ৪০জনকে নিয়ে দীর্ঘমেয়াদী ক্যাম্প হবে।’

বিজ্ঞাপন

এই টুর্নামেন্ট ঘিরে ফেডারেশনের সহ সভাপতি সাজেদ এ.এ. আদেলকে চেয়ারম্যান করে গঠন করা হয়েছে ৪ সদস্যের অন্তর্বতীকালীন নির্বাচক কমিটি। নির্বাচক কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন কামরুল ইসলাম কিসমত (সদস্য সচিব), খাজা তাহের লতিফ মুন্না (সদস্য), রফিকুল ইসলাম কামাল (সদস্য)।

এই ট্রায়ালে কোচের দায়িত্বে ছিলেন মামুন-উর-রশীদ, সহকারী কোচ আলমগীর আলম ও গোলরক্ষক কোচ রাসেল খান বাপ্পি। এখান থেকে বাছাই করা হবে সেরা ৬০ জন। যাদের দেয়া হবে বছর জুড়ে প্রশিক্ষণ।

সারাবাংলা/জেএইচ

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন