বিজ্ঞাপন

চিনা সংস্থা যুক্ত থাকায় পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করলেন জিৎ

July 4, 2020 | 6:05 pm

এন্টারটেইনমেন্ট ডেস্ক

লাদাখ সীমান্ত নিয়ে ভারত ও চিনের মধ্যে চলছে তুমুল উত্তেজনা। আর তারই প্রভাব যেন এসে পড়েছে টলিউড সিনেমা পাড়ায়। একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের স্পনসর হিসেবে চিনা সংস্থা যুক্ত থাকায় দেশের সম্মানে পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করলেন টলিউড তারকা জিৎ।

বিজ্ঞাপন

ভারতীয় একটি গণমাধ্যমের সুত্রে জানা যায়, সম্প্রতি ‘ফিল্মস অ্যান্ড ফ্রেমস’ নামে একটি সংস্থা চলচ্চিত্র পুরস্কার প্রদানের জন্য ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। চিনা সংস্থার স্পন্সরে যার মূল প্রযোজক ডিজিটাল প্লাটফর্ম ‘হ্যালো’। সেখানেই দর্শককের বিচারে সেরা অভিনেতার শিরোপা জিতেছিলেন জিৎ। কিন্তু সীমান্তের বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করে জিৎ জানিয়ে দিয়েছেন যে, সংশ্লিষ্ট সংস্থার দেওয়া পুরস্কার তিনি গ্রহণ করতে পারবেন না!

এ প্রসঙ্গে অভিনেতা জিৎ মন্তব্য করেছেন, ‘যে সমস্ত দর্শকরা আমাকে ভোট দিয়েছেন, যারা আমাকে ভালবাসেন, তাদের অসংখ্য ধন্যবাদ। পুরস্কার পেতে কার না ভাল লাগে বলুন! পরিবারের সদস্যরা, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধব সবাই খুশিও হয়। বিশেষ করে বাড়ির বাচ্চারা ট্রফি দেখলেই আনন্দ পায়। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে সংশ্লিষ্ট সংস্থার দেওয়া পুরস্কার গ্রহণ করতে কিছুতেই আমার মন সায় দিচ্ছে না!’

বিজ্ঞাপন

চিনা সংস্থা যুক্ত থাকায় পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করলেন জিৎ

জিৎ আরো জানালেন, ‘অনেকেই হয়তো জানেন না যে এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের সঙ্গে একটি চিনা কোম্পানি যুক্ত রয়েছে। আমার ব্যক্তিগতভাবে কারও সঙ্গে কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু এই মুহূর্তে আমাদের দেশের সঙ্গে চিনের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক ভাল নয়। চিনের আগ্রাসী মনোভাবাপন্নের জন্যই শহিদ হতে হয়েছে আমাদের দেশের জওয়ানদের। আর এমতাবস্থায় কোনও মতেই আমি এই পুরস্কার নিতে পারব না। সীমান্তে গিয়ে লড়াই না করতে পারলেও নিজের দেশের জন্য তো এটুকু করাই যায়। তাই পুরস্কার প্রত্যাখ্যান করলাম।’ অভিনেতার এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে আয়োজকদের পক্ষ থেকে এখনো কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

এদিকে দিন দুয়েক আগেই চিনা অ্যাপ ‘টিকটক’ নিষিদ্ধ করা নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন টলিউড অভিনেত্রী সাংসদ নুসরত জাহান। পাশাপাশি ক্ষমতাসীন তৃণমূলের যুবশক্তির রাজ্য কো-অর্ডিনেটর টলিউড অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীরও মন্তব্য ছিল, ‘অ্যাপ ব্যান করলে তো আর শহীদরা ফিরে আসবেন না!’

সারাবাংলা/এএসজি

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন