বিজ্ঞাপন

জাপার নির্বাহী চেয়ারম্যান হচ্ছেন সাদ, মানসিক যন্ত্রণায় কাদের

December 1, 2022 | 9:37 pm

আজমল হক হেলাল স্পেশাল করেসপডন্টেন্ট

ঢাকা: জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের দলের পদ হারাতে যাচ্ছেন বলে গুঞ্জন উঠেছে। দলটির আগামী জাতীয় কাউন্সিলে তিনি এই পদ হারাতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে। এদিকে, দলের বিশ্বস্ত সূত্র জানাচ্ছে, জাপার নির্বাহী চেয়ারম্যান হতে পারেন সাদ এরশাদ। এতে জিএম কাদের মানসিক যন্ত্রণায় ভুগছেন। জিএম কাদের নিজেই একটি ভিডিও বার্তায় তার মানসিক যন্ত্রণার কথা তুলে ধরেছেন।

বিজ্ঞাপন

রওশনপন্থি সূত্র থেকে জানা গেছে, জিএম কাদেরকে রওশন এরশাদের নেতত্বে রাজনীতি করার প্রস্তাব দেওয়া হবে। যদি এই প্রস্তাব মেনে নেন তাহলে তিনি জাতীয় পার্টিতে রাজনীতি করতে পারবেন। অন্যথায় আসন্ন কাউন্সলে তিনি দল থেক সদস্যপদও হারাতে পারেন বলে আভাস পাওয়া গেছে।

সূত্র জানায়, দলটির কাউন্সিলের মাধ্যমে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের পদে আসবেন রওশন এরশাদ এবং এরশাদপুত্র রাহাগির আল মাহি সাদ হবেন পার্টির নির্বাহী চেয়ারম্যান। জাতীয় পার্টিতে কো-চেয়ারম্যান, অতিরিক্ত মহাসচিব ও পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা পদ বিলুপ্তি হবে। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির আদলে নেতৃত্বে নিয়ে যাওয়ার জন্য এসব পদ-পদবি বিলুপ্তি হবে। দলের সিনিয়র নেতারা জাতীয় পার্টির উপদেষ্টা হবেন। তারা দলের চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা হবেন না। এজন্য দলটির গঠনতন্ত্রের সংশোধনী কার্যক্রম শুরু করেছে রওশনপন্থি নেতারা।

বিজ্ঞাপন

সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, ১ জানুয়ারি জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। ওইদিন দলের কাউন্সিল করার প্রস্তাব দিয়েছেন রওশনপন্থি নেতারা। তবে রওশন এরশাদ এ ব্যাপারে এখনও কোনো মতামত দেননি। তবে চলতি মাসের মধ্যে জেলা জাতীয় পার্টির কাউন্সিলগুলো শেষ করার জন্য তাগিদ দিয়েছেন তিনি। তার এই তাগিদ থেকেই দলটির নেতাদের ধারণা, জাপার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনেই কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হতে পারে। এজন্য ইঞ্জিনিয়ার্স ইনিস্টিটিউটে অগ্রিম বুকিংও দেওয়া হয়েছে।

রওশন এরশাদের মুখপাত্র কাজী মামুনুর রশিদ সারাবাংলাকে বলেন, ‘জাতীয় পার্টির আগামী কাউন্সিলে চেয়ারম্যান পদসহ অন্যান্য পদে পরিবর্তন আসবে। গঠনতন্ত্র সংশোধন করে নতুন পদ সৃজন ও পুরাতন পদ বিলুপ্তি করা হবে।’ জানুয়ারিতে জাপার কাউন্সিল হতে পারে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘গঠনতন্ত্র সংশোধীন জন্য ইতোমধ্যে একটি কমিটি করা হয়েছে। কমিটির আহ্বায়ক হয়েছেন এস এম আলম।’

বিজ্ঞাপন

রওশনপন্থি নেতা গোলাম মসিহ বলেন, ‘রওশন এরশাদ সবাইকে নিয়ে দলটির কাউন্সিল করতে চান। কাউন্সিলাররা নেতৃত্বে পরিবর্তন চাইলে তাই হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এরশাদপুত্র সাদ জাপার নেতৃত্বে গুরুত্বপূর্ণ পদ পাচ্ছেন।’

এসব বিষয় নিয়ে রওশনপন্থি নেতা ইকবাল হোসেন রাজু জানান, দলটি ঢেলে সাজনোর জন্য কার্যক্রম অব্যহত রয়েছে। ৭৮টি রাজনৈতিক জেলার মধ্যে ৩৮টির কাউন্সিল শেষ হয়েছে। ডিসেম্বরের মধ্যে বাকি জেলাগুলোর কাউন্সিল শেষ করা হবে। আগামী কাউন্সিলে দলে নতুন নেতৃত্ব আসবে বলেও জানান তিনি।

বিজ্ঞাপন

সারাবাংলা/এএইচএইচ/পিটিএম

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন