বিজ্ঞাপন

‘৭০ লাখ মানুষের শহরে ১০ লাখ জমায়েত ব্যাপার নয়’

December 1, 2022 | 9:36 pm

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট

চট্টগ্রাম ব্যুরো : ৭০ লাখ মানুষের চট্টগ্রাম শহরে ১০ লাখ মানুষের সমাবেশ করা কোনো ব্যাপার নয় বলে মন্তব্য করেছেন নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দীন চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভাকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) সকালে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে নগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

মাহতাবের এই বক্তব্যের মধ্য দিয়ে ৪ ডিসেম্বর নগরীর পলোগ্রাউন্ডে যে জনসভা হবে, তাতে জনসমাগমের টার্গেটের একটি চিত্র মিলেছে বলে মনে করছেন দলটির নেতাকর্মীরা।

বিজ্ঞাপন

মাহতাব উদ্দীন চৌধুরী বলেন, ‘৪ ডিসেম্বর শেখ হাসিনার জনসভা আমাদের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ। আমরা প্রমাণ করব- ওইদিন চট্টগ্রামের জনতা মহাপ্লাবনের মতো জেগে উঠবে। চট্টগ্রাম শহরে ৭০ লাখ মানুষের বসবাস। সুতরাং ১০ লাখ মানুষের সমাবেশ করা কোনো ব্যাপার নয়।’

সভায় মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০ বছর পর চট্টগ্রাম শহরে জনসভায় আসছেন। জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ ও স্থানীয় ইস্যু নিয়ে তিনি কথা বলবেন। এই জনসভাকে সফল করে আমাদের প্রমাণ করতে হবে- আমরা বিএনপি, জামায়াতের অরাজকতা সৃষ্টির পরিকল্পনার বিরুদ্ধে মাঠে আছি।’

বিজ্ঞাপন

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন বলেন, ‘ষড়যন্ত্র ও অপঘাত মোকাবিলায় চট্টগ্রামের মাটি বার বার প্রতিবাদি ভূমিকা পালন করেছে। এখন প্রয়োজন মানুষের ভালবাসা অর্জন করে রাজপথে থেকে অপশক্তিকে প্রতিহত করা।’

নগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ‘চট্টগ্রাম বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার দুর্জয় ঘাঁটি। দলের সকল ক্রান্তিকালে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের নিয়ে মাঠে ছিল। আবারও প্রমাণ করার সময় এসেছে নগর আওয়ামী লীগ সুশৃঙ্খল ও সুসংগঠিত। আমাদের প্রমাণ করতে হবে, বৃহত্তর স্বার্থে আমরা ক্ষুদ্র স্বার্থকে পরিহার করতে জানি। পলোগ্রাউন্ডে শেখ হাসিনার জনসভার মাধ্যমে দেশবাসীকে জানান দিতে হবে আওয়ামী লীগ অপরাজেয় শক্তি।’

বিজ্ঞাপন

নগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হাসান মাহমুদ হাসনীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- সহ সভাপতি নঈম উদ্দীন চৌধুরী, ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, খোরশেদ আলম সুজন, জহিরুল আলম দোভাষ, আলতাফ হোসেন চৌধুরী এবং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম।

সারাবাংলা/আরডি/একে

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন